kolkata news

 

নিজস্ব প্রতিনিধি, শিলিগুড়ি: কালিম্পংয়ের পর আজ ফের একবার শিলিগুড়ি পরিদর্শন করলেন কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি দলের সদস্যরা। এদিন শুরুতেই নিউ চামটা চা-বাগান পরিদর্শন করেন কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি দলের সদস্যরা। পরবর্তীতে এদিন ফের একবার শিলিগুড়ির বিধান মার্কেট পরিদর্শন করে দলটি। খতিয়ে দেখেন করোনা মোকাবিলায় কী কী ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে তা। সামাজিক দূরত্ববিধি-সহ লকডাউন কতটা মানা হচ্ছে, সবই পর্যালোচনা করেন প্রতিনিধি দলের সদস্যরা।

এদিন সকালে রানিডাঙ্গা এসএসবি ক্যাম্প থেকে বেরিয়ে সোজা নিউ চামটা চা-বাগানে পৌঁছয় কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি দল। সেখানে পৌঁছে বাগান কতৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলেন প্রতিনিধি দলের সদস্যরা। একইসঙ্গে ঘুরে দেখেন কারখানা ও বাগান। এরপর প্রতিনিধি দলের সদস্যরা পৌঁছন শিলিগুড়ির বিধান মার্কেটে। সেখানে কীভাবে বাজার চলছে, তা খতিয়ে দেখেন। একইসঙ্গে খতিয়ে দেখেন গ্লাভস, মাস্কের ব্যবহার হচ্ছে কিনা? খতিয়ে দেখেন সামাজিক দূরত্ব ও লকডাউন ইস্যু। এদিনের পরিদর্শন শেষে উষ্মা প্রকাশ করেন কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি দলের সদস্যরা। দলের প্রধান বিনীত জোশী বলেন, লকডাউন সে ভাবে মানা হচ্ছে না। মাস্কের ব্যবহার সে ভাবে নেই। যদিও এই রোগ প্রতিরোধে মাস্কের ব্যবহার অত্যাবশ্যক। সেক্ষেত্রে সাধারণ মানুষকে একটু গুরুত্ব দিয়ে লকডাউন পালন করতে হবে।

উল্লেখ্য, শনিবার কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি দল কালিম্পং পরিদর্শন করে৷ তবে রাজ্যের তরফে কোনও প্রতিনিধি না থাকায় কিছুটা সমস্যার মুখে তাদের পড়তে হয় তাদের। সেখানে পৌঁছে প্রথমে উত্তরবঙ্গের প্রথম করোনা আক্রান্ত মৃতার বাড়ির সামনে যান। সেখানকার পরিস্থিতি ঠিক আছে কিনা, তা খতিয়ে দেখেন প্রতিনিধি দলের সদস্যরা। পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি দলের সদস্য ব্রিগেডিয়ার অজয় গাঙ্গোয়ার বলেন, পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করছি। রাজ্যের তরফে আমাদের যে তথ্য দেওয়া হয়েছে, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here