news bengali

মহানগর ওয়েবডেস্ক: পাকিস্তান, নেপালের পাশাপাশি সীমান্ত দ্বন্দ্বে রীতিমতো উত্তেজনামূলক পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে ভারত ও চিনের মধ্যে। অরুণাচল প্রদেশ ডোকলাম এর মত জায়গা গুলিতে চিনের আগ্রাসন নীতিতে রীতিমতো রুষ্ট ভারত সরকার। পরিস্থিতি খারাপ দিকে যেতে পারে অনুমান করে ইতিমধ্যেই উত্তর-পূর্ব সীমান্তে সেনা বাড়াতে শুরু করেছে দুই দেশই। এহেন ঠান্ডা লড়াই ও উত্তেজনামূলক পরিস্থিতির মাঝেই সুর কিছুটা নরম করে প্রথমবার মুখ খুললেন চিনের বিদেশ মন্ত্রকের মুখপাত্র ঝাও লিজিয়ান। পাশাপাশি তার বক্তব্য উঠে এল এমন সময় যখন চিনের রাষ্ট্রপতি শি জিনপিং তার সেনাদের যুদ্ধের জন্য প্রস্তুত হওয়ার নির্দেশ দিলেন।

বুধবার চিনের এক সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে জানান, ভারত-চিন সীমান্ত পরিস্থিতি নিয়ে চিনের বক্তব্য স্পষ্ট এবং সুসংহত। তার কথায় ভারতীয় সীমান্তের পরিস্থিতি যথেষ্ঠ স্বাভাবিক এবং নিয়ন্ত্রণের মধ্যেই রয়েছে। দুই দেশের সম্পর্ক যথেষ্ট ভালো। যে সমস্যা চলছে সেটা আলোচনার মাধ্যমে সমাধান করা সম্ভব। পাশাপাশি তিনি এটাও জানিয়ে দেন, দুই দেশের শীর্ষ নেতার মধ্যে যে চুক্তি হয়েছে সেটা আমরা সম্মানের সঙ্গেই পালন করছি।

প্রসঙ্গত, ভারত এবং চিনের মধ্যে প্রায় ৩৫০০ কিলোমিটার দীর্ঘ সীমান্ত রেখা রয়েছে। তবে চিনা সেনার অনুপ্রবেশকে কেন্দ্র করে মাঝেমধ্যেই উত্তাল হয়ে উঠেছে দুই দেশের কূটনৈতিক সম্পর্ক। সাম্প্রতিক সময়ে এই দুষ্কর্ম আরও বেড়েছে চিনের তরফে। যার প্রেক্ষিতে কড়া বার্তা দিতে দেখা গিয়েছিল ভারতের বিদেশ মন্ত্রকের তরফে। পরিস্থিতির গুরুত্ব বুঝে ভারতের নিরাপত্তা পরিষদের প্রধান অজিত ডোভালের সঙ্গে হাইভোল্টেজ মিটিংয়ে বসতে দেখা যায় দেশের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে। এহেন পরিস্থিতির মাঝেই এবার সুর নরম করে ভারতকে বার্তা দিল চিন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here