ডেস্ক: অপেক্ষা আর মাত্র কয়েক ঘণ্টার, ৯০ মিনিটের উৎসবে ভাসতে তৈরি বিশ্বের আপামর ফুটবল প্রেমীরা। কিয়েভে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ ফাইনাল। এ খেলা কেবল ২২ জন ফুটবলারের মধ্যে মাঠের ভিতরকার যুদ্ধ নয়। বা কেবল সবুজ গালিচায় ২২ জন ফুটবলারের প্রতিদ্বন্দ্বীতা নয়, এ যেন বিশ্বের ৩০০টির বেশি দেশে ছড়িয়ে থাকা ভক্তের আবেগ, উৎকণ্ঠা ও ধৈর্যের পরীক্ষা। রিয়াল মাদ্রিদ বনাম লিভারপুল।

পরপর তিনবার এই ঐতিহাসিক ট্রফি জিতে ইতিহাস তৈরির সমুখে দাড়িয়ে স্পানিশ জায়েন্ট। অন্যদিকে প্রাচীন ইংলিশ ক্লাব লিভারপুলের জন্য এই ম্যাচ হল ছাইচাপা অবস্থায় বছরের পর বছর পড়ে থাকা একটি ফিনিক্স পাখির নতুন জন্মের রূপকথা লেখার স্বপ্ন। ২০১৪, ২০১৬, ২০১৭ সালের ইউরোপ সেরা হয়েছিল জিনেদিন জিদানের শিষ্যরাই। কিন্তু এই ট্রফির জন্য এখনও একই ভাবে ক্ষুধাতুর রিয়াল। অন্যদিকে, লিভারপুলের ক্যাবিনেটে শেষবার এই ঐতিহ্যশালী ট্রফি ঢুকেছিল ২০০৫ সালে। এরপর ১২ বছরের অপেক্ষা, যা সত্যি হওয়ার স্বপ্ন নিয়েই আজ কিয়েভে পা রাখবেন ক্লোপের শিষ্যরা।

লড়াইটা রিয়াল মাদ্রিদ বনাম লিভারপুল ঠিকই। কিন্তু আসল খেলাটা হবে দুই ফুটফল মস্তিষ্কের। জিনেদিন জিদান বনাম জার্যেন ক্লোপ। মাঠে খেলবেন %E