news bengali

মহানগর ওয়েবডেস্ক: মধ্যপ্রদেশ, রাজস্থান, ছত্রিশগড় বিজেপির অশ্বমেধের ঘোড়াকে আটকে দিয়ে এই তিন রাজ্যে ক্ষমতাভিষেক হয়েছিল কংগ্রেসের। নতুন করে আশার আলো দেখতে শুরু করেছিল হাত। তবে সময়ের সরণি বেয়ে ক্রমশ আশাহত হতে হচ্ছে দেশের প্রবীণ এই দলটিকে। মধ্যপ্রদেশ হাতছাড়া হয়েছে আগেই পাইলটের পতনে রাজস্থানে ঘটি উল্টানোর কাউন্টডাউন শুরু হয়ে গিয়েছে ইতিমধ্যেই। এবার আশংকার বার্তা এল ছত্তিশগড় থেকে। সম্প্রতি ছত্তিশগড়ের বিজেপির বরিষ্ঠ নেতা তথা প্রাক্তন মন্ত্রী বৃজমোহন আগারওয়াল বলেন, ছত্রিশগড়ের কংগ্রেস বিধায়কদের মধ্যে অসন্তোষ ক্রমশ বাড়ছে। যা এই বার্তা দিচ্ছে আগামীতে মধ্যপ্রদেশ রাজস্থান এর মত অবস্থা হতে চলেছে ছত্তিশগড়ের।

সম্প্রতি সংবাদ মাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে আগরওয়াল বলেন, কংগ্রেসের বিধায়কদের অসন্তোষের জেরে অতি দ্রুত সংসদীয় সচিব নিযুক্ত করেছে কংগ্রেস। একই ভাবে অতি দ্রুততার সঙ্গে কমিশন, কর্পোরেশন এবং বোর্ডের নানান পদে নিযুক্তকরন শুরু হয়েছে। এটা মধ্যপ্রদেশ রাজস্থানের প্রভাব। দলের মধ্যে প্রবল অসন্তোষ শুরু হয়েছে। যার জেরেই এতকিছু, কংগ্রেস ভয় পাচ্ছে ছত্রিশগড়েও যাতে মধ্যপ্রদেশ, রাজস্থানের মত অবস্থা না হয়। এদিকে অগরওয়ালের এই বক্তব্যের পরে, কংগ্রেসের প্রবীণ নেতা দিগ্বিজয় সিং পাল্টা প্রশ্ন করেছেন, ভারতীয় জনতা পার্টি এবং ব্রজমোহন অগরওয়াল নিলামে বসছেন কিনা। বুধবার রায়পুর সফরের সময় সিং আগরওয়ালের বক্তব্যের প্রেক্ষিতে বলেন, বিজেপি এবং ব্রিজমোহনের কাছে এত অর্থ এসে গেছে যে নিলাম যেভাবে হয় সেভাবে নিলাম করতে বসেছে। তবে রাজস্থান ইস্যু নিয়ে কোনও প্রশ্ন করা হলে মন্তব্য করতে চাননি তিনি।

প্রসঙ্গত, ছত্রিশগড়ে গত মঙ্গলবার ১৫ জন বিধায়কের সংসদীয় সচিব পদে নিযুক্ত করা হয়েছে। রাজ্য সরকারের বক্তব্য অনুযায়ী এই সংসদ সচিব বিধায়কদের সংসদীয় কাজকর্মে সাহায্য করবে। তবে এই নিয়োগের পর কংগ্রেসের দিকে আঙুল তুলেছে বিরোধী দল বিজেপি। তাদের অভিযোগ দলীয় বিধায়কদের অসন্তোষের কারণেই এভাবে সংসদীয় সচিব গঠন করেছে মুখ্যমন্ত্রী। এর মাধ্যমেই বিভিন্ন কমিশন এবং পুরসভায় নিয়োগ করা হবে। দলের মধ্যে ভাঙন শুরু হয়েছে বুঝতে পেরেই তা সামাল দিতে মাঠে নামা হয়েছে। প্রসঙ্গত, ২০১৮ সালে ৯০ আসন বিশিষ্ট ছত্রিশগড় নির্বাচনে ৬৮ আসনে জয় পেয়েছিল কংগ্রেস-বিজেপি পেয়েছিল মাত্র ১৫ টি আসন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here