kolkata news

 

নিজস্ব প্রতিনিধি: ভোটের ফলপ্রকাশের পর থেকে এখনও পর্যন্ত রাজ্যে বেশ কয়েকজনের মৃত্যু হয়েছে। নিহতদের তালিকায় বিজেপির পাশাপাশি তৃণমূল সমর্থকও আছেন। নিহতদের পরিবারকে ২ লক্ষ টাকা করে আর্থিক সাহায্য ঘোষণা করল রাজ্য। আজ বনান্নে এই ঘোষণা করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘রাজনৈতিক হিংসায় কোনও মৃত্যু কাম্য নয়। রাজনৈতিক হিংসা রুখতে প্রশাসনকে সব রকমের ব্যবস্থা নিতে বলা হয়েছে। রাজনৈতিক হিংসায় মৃতদের পরিবারকে দুই লক্ষ টাকা করে ক্ষতিপূরণ দেওয়া হবে।‘

একইসঙ্গে চতুর্থ দফার ভোটে কোচবিহারের শীতলকুচিতে কেন্দ্রীয় বাহিনীর গুলিতে যে চার জনের মৃত্যু হয়েছিল, তাদের পরিবারের পাশে দাঁড়াল রাজ্য। শীতলকুচিতে কেন্দ্রীয় বাহিনীর গুলিতে নিহতদের পরিবারকে চাকরি দেওয়া হবে বলে আজ নবান্নে ঘোষণা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী।

রাজ্যে ভোট-পরবর্তী হিংসার ঘটনায় বিজেপি-কে কাঠগড়ায় তুলে মুখ্যমন্ত্রী আরও বলেন,  ‘যেখানে বিজেপি জিতেছে, সেখানে বেশি হিংসার ঘটনা ঘটছে। গত ৩ তারিখ পর্যন্ত রাজ্যে রাজনৈতিক হিংসা ১৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। তার মধ্যে অর্ধেক তৃণমূলের। অর্ধেক বিজেপির এবং একজন সংযুক্ত মোর্চার।‘

রাজ্যে চলতে থাকা এই হিংসা দেখতে আজ কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের একটি প্রতিনিধিদল এসেছে। সেই প্রসঙ্গে ক্ষোভ প্রকাশ করে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘করোনা পরিস্থিতিতে ভিনরাজ্য থেকে এরাজ্যে আসা রাজনৈতিক ব্যক্তি, মন্ত্রী আমলা সকলের জন্যই আরটিপিসিআর পরীক্ষা নেতিবাচক রিপোর্ট বাধ্যতামূলক করা হচ্ছে। এমনকী বিশেষ বিমানে যারা আসবেন, তাদেরকেও ওই রিপোর্ট সঙ্গে করে আনতে হবে। তা না হলে এখানেই তাদের করোনা পরীক্ষা করা হবে এবং রিপোর্ট পজিটিভ হলে বাধ্যতামূলক ভাবে দুই সপ্তাহের নিভৃতবাসে কাটাতে হবে।‘

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here