kolkata news

 

নিজস্ব প্রতিনিধি: রাজভবনের শপথগ্রহণ অনুষ্ঠান শেষে মুখ্যমন্ত্রী সরাসরি নবান্নে যাবেন। সেখানেও রাজ্য প্রশাসনের তরফে তাঁকে স্বাগত জানাতে এক অনাড়ম্বর অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হচ্ছে। মুখ্যসচিব, স্বরাষ্ট্রসচিব, রাজ্য পুলিশের মহানির্দেশক-সহ প্রশাসনের শীর্ষ কর্তারা তাঁকে স্বাগত জানাতে নবান্নের নির্ধারিত ফটকে উপস্থিত থাকবেন। মুখ্যমন্ত্রীর সেখানে পৌঁছনোর পর তাঁকে ‘গার্ড অফ অনার’ দেওয়া হবে।

কমব্যাট ব্যাটেলিয়নের ডিসি ধৃতিমান সরকারের নেতৃত্বে ‘গার্ড অফ অনার’ দেওয়া হবে। মুখ্যমন্ত্রী সেখানে সংক্ষিপ্ত বক্তব্য রাখতে পারেন। সেজন্য নবান্নের সামনে একটি ছোট মঞ্চ তৈরি করা হয়েছে। ওই অনুষ্ঠানের পরেই মুখ্যমন্ত্রী নবান্নে আনুষ্ঠানিক দায়িত্বভার গ্রহণ করবেন। তারপরেই রাজ্যের করোনা পরিস্থিতি নিয়ে প্রশাসনের শীর্ষকর্তাদের সঙ্গে তাঁর একটি জরুরি বৈঠকে বসার কথা আছে।

উল্লেখ্য, সকাল ১০.২৫ নাগাদ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় পৌঁছবেন রাজভবনে। তারপর হবে শপথগ্রহণ। শপথগ্রহণ শেষে একটি চা-চক্র আয়োজন করা হয়েছে। এরপর রাজভবন থেকে সকাল ১১.৩০ মিনিটে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সরাসরি পৌঁছবেন নবান্নে।

রাজভবনে অতিথি তালিকা খুব একটা লম্বা করা হয়নি। জানা গিয়েছে, তৃণমূল কংগ্রেসের কয়েকজন শীর্ষ স্থানীয় নেতার পাশাপাশি দলের ভোট-কুশলী প্রশান্ত কিশোরের ওই অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকার কথা। এছাড়া প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী তথা সিপিএম নেতা বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য, বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ, বিদায়ী বিধানসভার স্পিকার বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়, পরিষদীয় দলনেতা মনোজ টিগ্গা, বিধানসভার বিরোধী নেতা আব্দুল মান্নান, বামফ্রন্ট চেয়ারম্যান বিমান বসু, প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীর চৌধুরী, কংগ্রেস সাংসদ প্রদীপ ভট্টাচার্যের মতো কয়েক জনকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। একই সঙ্গে আমন্ত্রিত অতিথিদের তালিকায় উল্লেখযোগ্য নাম প্রাক্তন ভারতীয় ক্রিকেট অধিনায়ক তথা বিসিসিআই সভাপতি সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here