ডেস্ক: ৮ বছরের এক শিশুকে খুনের অভিযোগে তৃণমূলের পঞ্চায়েত সমিতির সদ্য জয়ী এক প্রার্থীর বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করল পুলিশ। অভিযোগ দায়ের হওয়ার পর থেকেই পলাতক বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয়ী অভিযুক্ত ওই তৃণমূল নেতা তাজউদ্দিন খান। ঘটনাটি ঘটেছে বাঁকুড়ার তালডাংরা থানার ঢেমনামারা গ্রামে।

গত দুই দিন ধরে নিখোঁজ ছিল রাহুল কুদ্দুস খান নামে বছর ৮ এর এক কিশোর। থানায় অপহরণের অভিযোগ দায়ের করে কিশোরের পরিবার। মঙ্গলবার সকালে স্থানীয় জঙ্গল থেকে কিশোরের মৃতদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। প্রাথমিক ভাবে ওই কিশোর খুন হয়েছে বলেই অনুমান করে পুলিশ। তবে কি কারণে এই কিশোর কে খুন করা হয়েছে তা জানতে তদন্তে নামে তালডাংরা থানার পুলিশ। পরিবারের অভিযোগ ছিল তৃণমূলের গোষ্ঠী দ্বন্দের জন্যই খুন হতে হয়েছে কুদ্দুস কে। মৃতের বাবা ইসলাম খানের অভিযোগ অনুযায়ী, ভোটের আগেরদিন তৃণমূলের অপর গোষ্ঠীর লোকজন মেরে ঘরছাড়া করে তাঁদের। তারপর রাহুলকে অপহরণ করে খুন করা হয়। ঘটনার তদন্তে নেমে, তৃণমূল নেতা তাজউদ্দিন খানের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করে পুলিশ। অভিযোগ দায়ের হওয়ার পর থেকেই পলাতক ওই তৃণমূল প্রার্থী। তাঁর খোঁজে তল্লাশি শুরু করা হয়েছে।

অন্যদিকে, তৃণমূল করায় দলের কর্মীর গলায় বঁটির কোপ মারার অভিযোগ উঠল বিজেপি কর্মীর বিরুদ্ধে। মঙ্গলবার ঘটনাটি ঘটেছে ঝাড়গ্রামের গোপীবল্লভপুরের শাশড়া গ্রামে। আশঙ্কাজনক অবস্থায় ওই তৃণমূল কর্মীকে ঝাড়গ্রাম জেলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ঘটনার জেরে গ্রামে ব্যাপক উত্তেজনা ছড়িয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here