ডেস্ক: মাত্র কয়েক মাস আগে শিশুপাচারের অভিযোগে তোলপাড় শুরু হয়েছিল গোটা রাজ্যজুড়ে। ঘটনার জেরে বেশ কয়েকজন তাবড় তাবড় পাচারকারীকে গারদের ওপারে পাঠায় রাজ্যপুলিশ। সেই ঘটনার রেশ রাজ্যবাসীর মন থেকে ভাল করে উবে যাওয়ার আগেই এবার শিশু পাচারের অভিযোগ উঠল প্রাক্তন এক সিপিএম কাউন্সিলরের বিরুদ্ধে। অভিযুক্ত ওই সিপিএম কাউন্সিলরের নাম প্রবীর সানি। বজবজ পুরসভার মল্লিক পাড়া এলাকার বাসিন্দা ওই অভিযুক্ত।

স্থানীয় সূত্রের খবর, বেশ কিছুদিন আগে পাচারের উদ্দেশ্যে চার পাঁচ দিনের একটি শিশুকে সঙ্গে করে নিয়ে আসে অভিযুক্ত প্রবীর ও তাঁর সঙ্গী হামিদুল ইসলাম। তাঁদেরই পরিচিত স্থানীয় এক ব্যক্তি সারফুদ্দিনের বাড়িতে বাচ্চাটিকে রাখে তারা। কিন্তু সারফুদ্দিনের বাড়ির লোকজন শিশুটির পরিচয় জানতে চাইলে তার কোনও সদুত্তর দিতে পারেনি সারফুদ্দিন। খুব স্বাভাবিকভাবেই শিশুটিকে কেন্দ্র করে বাড়িতে অশান্তি বাধে সারফুদ্দিনের। এমনকি গ্রামের লোকজনও শিশুটির পরিচয় জানতে চায় সারফুদ্দিনের কাছে। পরিস্থিতি খারাপ দিকে যাচ্ছে তা বুঝতে পেরেই সারফুদ্দিনের বাড়ি থেকে শিশুটিকে নিয়ে পালানোর চেষ্টা করে প্রবীর।

এভাবে হঠাৎ শিশুটিকে নিয়ে পালানর চেষ্টায় লোকজনের সন্দেহ আরও বাড়ে। বাধ্য হয়ে শিশুটিকে একটি ঝোপে ফেলে চম্পট দেয় প্রবীর। এরপর পুলিশ এসে ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করে শিশুটিকে। এবং কড়বেড়িয়া হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ইতিমধ্যেই পুরো ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। একইসঙ্গে খোঁজ চলছে পলাতক অভিযুক্ত ওই সিপিএম কাউন্সিলরের নাম প্রবীর সানির।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here