ডেস্ক: কমিউনিস্ট চিনের প্রতিষ্ঠাতা মাও জেদংয়ের নীতি ছিল একনায়ক শাসন। শুরুতে সেই পথই ধরেছিল চিন। পরবর্তি সময়ে মাও জেদংয়ের সেই নীতিকে ভুল বলে ব্যাখ্যা করে একনায়ক শাসনের বাইরে বেরিয়েছিল কমিউনিস্ট চিন। কিন্তু ওইটুকুই, ফের মাও জেদংয়ের নীতিকেই আঁকড়ে ধরল চিন। নতুন ইতিহাস সৃষ্টি হল ড্রাগন দেশে।

এতদিন পর্যন্ত দুবারের জন্য কেউ চিনের প্রেসিডেন্ট হিসাবে বহাল থাকতে পারতেন। কিন্তু সেই নিয়ম তুলে দিল চিনের সাংসদ। কমিউনিস্ট চিনে প্রেসিডেন্ট পরিবর্তন প্রথা তুলে দিয়ে, বর্তমান প্রেসিডেন্ট শি জিংপিংকেই আমৃত্যু প্রেসিডেন্ট পদে থাকার জন্য ভোট দিলেন চিনের সাংসদরা। রবিবার এই উপলক্ষ্যে ভোট হয় চিনের সাংসদে। যেখানে চিনের প্রায় ৩০০০ সাংসদ এই ভোটাভুটিতে অংশ নেন। ভোটের ফল প্রকাশিত হলে দেখা যায়, ২৯৫৮ টি ভোট পড়েছে জিংপিংকে চিনের আজীবন প্রেসিডেন্ট করার পক্ষে। মাও জেদংয়ের পর শি জিংপিং হলেন চিনের দ্বিতীয় ব্যক্তি যিনি আজীবনের জন্য বসতে চলেছেন চিনের প্রেসিডেন্ট পদে।

উল্লেখ্য, ২০১২ সাল থেকে চিনের প্রেসিডেন্ট পদে রয়েছেন শি জিংপিং। নিয়মমতো ২০২৩ সালে সেই পদ থেকে অবসর নেওয়ার কথা তাঁর। চিনের তরফে মনে করা হয় তাঁর আমলে চিনের অর্থনীতি একটি শক্তপোক্ত ভিতের উপর দাঁড়িয়েছে। সুতরাং তাঁর পরিবর্তে কোনও যোগ্য নেতৃত্ব না পাওয়ায় এই সিদ্ধান্ত নেয় চিনের সাংসদ। ১৯৫৪ সালে যেখানে চিনের সাংসদ গঠিত হয় তারপর এই নিয়ে মোট চারবার তা নতুন করে সংশোধন করা হল।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here