international news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: আলোচনা হওয়ার কথা ছিল করোনাভাইরাস নিয়ে। কিন্তু রাষ্ট্রসঙ্ঘে সেই আলোচনা কার্যত হতেই দিল না চিন! রাশিয়া এবং দক্ষিণ আফ্রিকাকে ‘হাত করে’ ভাইরাস সংক্রান্ত বৈঠক স্থগিত করিয়ে দিল বেজিং। রাষ্ট্রসঙ্ঘে রাশিয়া এবং দক্ষিণ আফ্রিকা জানাল, করোনাভাইরাস ছড়ানোর জন্য চিনের হাত নেই।

চিন থেকে ছড়িয়ে পড়া এই মারণ ভাইরাসের জেরে এখন গোটা বিশ্বের সব দেশ যেন একে একে মৃত্যুপুরীতে পরিণত হচ্ছে। অর্থনীতির গ্রাফ নিচে নামছে, শান্তি ভঙ্গ হচ্ছে, মানুষের মৃত্যু ঘটছে। ভাইরাসের তাণ্ডবে ইতিমধ্যে আমেরিকা, ইতালি, স্পেন কার্যত বিধ্বস্ত। সমগ্র পরিস্থিতি নিয়ে রাষ্ট্রসঙ্ঘের সিকিউরিটি কাউন্সিল আলোচনা করতে চেয়েছিল। সেই আলোচনায় কার্যত হতে দিল না শি জিং পিং সরকার। বৈঠক হওয়ার আগেই রাশিয়া এবং দক্ষিণ আফ্রিকা দাবি করল, যে ভাইরাস গোটা বিশ্বে ছড়িয়ে পড়েছে তা চিন থেকে উৎপন্ন হলেও তার সঙ্গে সে দেশের সরাসরি কোনো সম্পর্ক নেই। উল্লেখ্য, ভাইরাস ইস্যুতে চিনকে সমর্থন করা রাশিয়া এবং দক্ষিণ আফ্রিকা, এই দুই দেশই তাদের খুব ভাল বাণিজ্য বন্ধু দেশ।

আমেরিকা প্রথম থেকেই করোনাভাইরাস ছড়ানোর জন্য চিনকে দোষ দিয়ে আসছে। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প একাধিকবার চিনকে আক্রমণ করেছেন। এমনকি করোনাভাইরাসকে ‘চাইনিজ ভাইরাস’ বা ‘উহান ভাইরাস’ নামও দিয়েছেন। সেই নিয়ে বেজায় চটেছে চিন। তারা এর আগেও জানিয়েছে এখনও স্পষ্ট করছে যে, এই ভাইরাস তারা ইচ্ছা করে ছড়ায়নি। চিন সরকারের তরফে এবার আরও স্পষ্ট করে বলা হল, করোনাভাইরাস তারা তৈরি করেনি, বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে পড়ার ক্ষেত্রেও তাদের দায় নেই।

চিনের তরফে স্পষ্ট জানানো হয়েছে, যেভাবে ভাইরাস ছড়ানোর জন্য তাদের দোষারোপ করা হচ্ছে তা সম্পূর্ণ ভুল। যারা চিনকে এইভাবে দোষারোপ করছে তারা ভুলে যাচ্ছে, বহু চীনা নাগরিকের এই ভাইরাসের কারণে মৃত্যু হয়েছে। তাদের জীবন কেড়ে নিয়েছে এই ভাইরাসই। সুতরাং, চিন ইচ্ছাকৃত এই ভাইরাস ছেড়েছে তা বলা কখনোই যুক্তিযুক্ত নয়। চিনের উহানে সর্বপ্রথম করোনাভাইরাসের সন্ধান মিললেও এর কোন প্রমাণ নেই যে, এই ভাইরাস চিন তৈরি করেছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here