corona news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: হাতে নয়, চিনকে ভাতে মারার পরিকল্পনা করেছে ভারত। সেই পরিকল্পনার প্রথম বড় পদক্ষেপ হিসেবে সোমবার রাতেই ৫৯টি চিনা অ্যাপ ব্যান করে দিয়েছে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক। নিষেধাজ্ঞা জারি হয়েছে এরকম অ্যাপের তালিকায় রয়েছে টিকটক এবং ইউসি ব্রাউজারের মত জনপ্রিয় অ্যাপ্লিকেশন। ভারতের এই অপ্রত্যাশিত পদক্ষেপের পরেই কিছুটা চাপে পড়ে গিয়েছে চিন। ফলস্বরূপ রাতারাতি তাদের সুর বদলে গিয়েছে। ঘটনার প্রেক্ষিতে এদিন চিনা বিদেশমন্ত্রক জানিয়েছে, তারা গভীরভাবে উদ্বিগ্ন। ভারতের এই সিদ্ধান্ত দুই দেশের বাণিজ্যের ওপর প্রভাব ফেলতে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছে ড্রাগনের দেশ।

চিনের বিদেশ মন্ত্রকের মুখপাত্র ঝাও শিজিয়াং এদিন এক বিবৃতিতে জানিয়েছেন, ভারতের এই পদক্ষেপে চিন গভীরভাবে উদ্বিগ্ন এবং তারা পরিস্থিতি খতিয়ে দেখছে।’ চিনা বিদেশ মন্ত্রকের বক্তব্যে একটা জিনিস স্পষ্ট, তারা কখনই আশা করিনি এইভাবে ১৩০ কোটির দেশের বাজারে তাদের ৫৯টি নামজাদা অ্যাপ্লিকেশন এভাবে বন্ধ করে দেওয়া হবে। ফলে স্বভাবতই কিছুটা হলেও উদ্বেগে রয়েছে তারা।

চলতি মাসেই লাদাখের গালোয়ান উপত্যকায় চিন ও ভারতের মধ্যে সংঘর্ষ হয়েছিল। এতে ভারতের কুড়ি জন জওয়ান শহিদ হন। ঘটনায় চিনেরও কমপক্ষে ৪৩ জন সেনা হতাহত হয়েছে বলে খবর। ঘটনার পর থেকেই দুই দেশের মধ্যে উত্তেজনা চরমে বিরাজ করছে। এতকিছুর পরও অবশ্য চিন নরম মনোভাব দেখায়নি। প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখা বরাবর তারা আগ্রাসন বাড়িয়ে চলেছে। উদ্ভূত পরিস্থিতিতে ঘুরপথে জবাব দেবে বলে ঠিক করেছে ভারত। গতকালকে পদক্ষেপে এটা অন্তত স্পষ্ট।

ভারতের বাজার হারালে তা চিনের অর্থনীতির জন্য যে মোটেও সুখকর হবে না তা এখন থেকেই টের পাচ্ছে বেজিং। সেইমতো এদিন চিনা মুখপত্র গ্লোবাল টাইমসে লেখা হয়েছে, ভারতীয়দের উচিত জাতীয়তাবাদ দূরে সরিয়ে রেখে বাস্তবে মনোনিবেশ করা। অন্যথায় দুই দেশেরই লোকসান হবে। ভারতের সার্বভৌমত্ব যাতে চোট সেই মতো অ্যাপ্লিকেশন নির্মাণ করার নির্দেশও সংশ্লিষ্ট সংস্থাগুলিকে দিয়েছে চিন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here