মহানগর ওয়েবডেস্ক: তাদের আপত্তি না শুনে তাইওয়ানে মার্কিন স্বাস্থ্য সচিব যাওয়ায় সে দেশের ওপর দিয়ে যুদ্ধ বিমান ওড়াল  চিন। অত্যন্ত বিপজ্জনক ভাবে তাইওয়ানের মিসাইলের সীমানায় ঢুকে পড়ে আকাশপথে ‘হুমকি’ দিয়ে গেল শি জিনপিং–এর বিমান বাহিনী। অন্যদিকে আমেরিকার স্বাস্থ্য সচিব অ্যালেক্স অ্যাজার জানিয়ে গেলেন দ্বীপরাষ্ট্র তাইওয়ানকে সহায়তা করতে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প প্রস্তুত।

চিনের দাবি তাইওয়ান আসলে তাদের দেশের অংশ। সেই দেশে মার্কিন স্বাস্থ্য সচিবের আসা নিয়ে আগে থেকেই আপত্তি জানিয়েছিল শি জিনপিং–এর প্রশাসন। এমনকি এই সফর হলে যে কোনও ধরনের প্রতিক্রিয়া চিন দেখাতে পারে বলে আগে সাবধান করে দিয়েছিল। সম্প্রতি মার্কিন–চিন সম্পর্ক অত্যন্ত খারাপ হয়ে পড়ায় এই আপত্তি অন্য মাত্রা পায়। খুব স্বাভাবিক ভাবেই সেই আপত্তিকে সামান্যতম গুরুত্ব না দিয়ে রবিবারই তাইওয়ানে পা রাখেন অ্যালেক্স অ্যাজার।

চিনের কথা উপেক্ষা করায় তাইওয়ান প্রণালীর ঠিক মাঝখান দিয়ে ভারতীয় সময় সকাল ৯ টা নাগাদ জে–১১ এবং জে–১০ দুটি যুদ্ধবিমান বিপজ্জনক ভাবে উড়ে যায়। মার্কিন সচিব অ্যাজার ও তাইওয়ান প্রেসিডেন্ট সাই ইং–ওয়েন–এর বৈঠকের ঠিক আগে চিনের দিক থেকে এই ‘হুমকি’ প্রদর্শনটি করা হয় বলে জানা গিয়েছে। তাইওয়ান বিমান বাহিনীর বিমান চিনের বিমান দুটিকে তাড়া করে দেশের সীমানার বাইরে পাঠিয়ে দেয় বলে জানানো হয় প্রতিরক্ষা বাহিনীর তরফে। ২০১৬ সাল থেকে এই নিয়ে তিনবার তাইওয়ানের আকাশসীমা লঙ্ঘন করল চিন।

বিষয়টি নিয়ে চিনের প্রতিরক্ষা মন্ত্রক এখনও পর্যন্ত কোনও মন্তব্য করেনি। তাইওয়ানের এক শীর্ষস্থানীয় আধিকারিক জানান, অ্যাজারের সফরকে কেন্দ্র করে চিন যা করল সেটি অত্যন্ত বিপজ্জনক পদক্ষেপ। তাদের এই হুমকি এতটাই লাগামছাড়া হয়ে পড়েছে যে তাইওয়ান মিসাইলের সীমানায় ঢুকে পড়তেও পিছ–পা হয়নি চিনের যুদ্ধের বিমান।

প্রায় চার দশক পর কোনও শীর্ষ স্থানীয় মার্কিন প্রশাসনিক কর্তা তাইওয়ানে আসলেন। বেজিং–এর সমর্থনে তাইপেই’র সঙ্গে ১৯৭৯ সালে সম্পর্ক ছিন্ন করে ওয়াশিংটন। বর্তমানে সেই ওয়াশিংটনের প্রতিনিধিই তাইপেই’তে এসেছে বলে হুমকি দিয়ে যুদ্ধ বিমান ওড়াল চিন। করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে তাইওয়ানের লড়াইয়ের প্রেক্ষিতে গণস্বাস্থ্য ও আর্থিক ক্ষেত্রে সহায়তার বিষয়ে আলোচনা করতেই মার্কিন স্বাস্থ্য সচিব তাইওয়ান সফরে গিয়েছেন বলে জানানো হয়েছে ওয়াশিংটনের পক্ষ থেকে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here