মহানগর ওয়েবডেস্ক: লাদাখ সীমান্তে চিনা আগ্রাসন যেন কম হওয়ার নাম নিচ্ছে না। উল্টে সময়ের সঙ্গে সঙ্গে উত্তরোত্তর তা বেড়েই চলেছে। চিনের আস্পর্ধা কতটা বেড়েছে তার সাম্প্রতিক উদাহরণ পাওয়া গিয়েছে স্যাটেলাইট ছবিতে। যেখানে দেখা যাচ্ছে, ভারতীয় ভূখণ্ড হিসেবে পরিচিত প্যাংগং লেকের ধারে চিন নিজের দেশের প্রতীক এঁকে রেখেছে সুবিশাল আকারে।

উপগ্রহ চিত্রে দেখা গিয়েছে, প্যাংগং লেকের ফিঙ্গার ৪ ও ফিঙ্গার ৫ এর মধ্যে অবস্থিত মধ্যবর্তী এলাকায় চিন একটি বিশালাকার চিনা প্রতীকী এঁকে দিয়েছে। এই চিত্র যাতে ভারতের উপগ্রহে ধরা পড়ে এবং চিন ওই এলাকায় নিজেদের উপস্থিতি জাহির করতে পারে সেই কারণে ইচ্ছাকৃতভাবেই ওই প্রতীক আঁকা হয়েছে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। ভারতীয় সেনার সূত্রে পাওয়া আরেকটি খবর এর মধ্যে রক্তচাপ বাড়িয়েছে নয়াদিল্লির। গত মে মাসের গোড়ায় প্যাংগং লেক বরাবর প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখায় চিন সেনা মজুতের পর থেকেই ফিঙ্গার ৪-এ আর টহল দিতেও দেওয়া হচ্ছে না ভারতীয় বাহিনীকে। ফলে পুরো এলাকাটাই চিনের চলে যেতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

ভারতীয় গোয়েন্দাদের অনুমান, ওই ফিঙ্গার পয়েন্টের মাঝে চিনা সেনাবাহিনী নিজেদের ছাউনি ও অস্ত্র শিবির বানিয়ে ফেলেছে। আরও দেখা গিয়েছে, শুধু প্যাংগং লেকের ধার বরাবর নয়, আরও অন্তত ৮ কিলোমিটার ভারতের দিকে ঢুকে ঘাঁটি গেড়েছে চিনা বাহিনী। গড়ে তোলা হয়েছে ১৮৬টি ছোট বড় অস্থায়ী তাঁবু ও কুড়েঘর। এতদিন প্যাংগং লেকের ধার বরাবর ফিঙ্গার ৮ পর্যন্ত ভারতীয় সেনাবাহিনীর টহল চলত। ফলে ওই এলাকাকে ভারতের নিজেদের এলাকা বলেই দাবি করত। তবে গালোয়ানে তৈরি হওয়া উত্তেজনার আগে থেকেই ফিঙ্গার ৪-এ টহল দেওয়া বন্ধ রয়েছে ভারতীয় সেনার জওয়ানদের। ফলে চিন যে জোরপূর্বক অনেকটা এলাকায় ঢুকে দখলের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে সেটা স্পষ্ট।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here