মহানগর ওয়েবডেস্ক: ফের একবার নক্ষত্র পতন হিন্দি ফিল্ম জগতে। চলে গেলেন প্রখ্যাত কোরিওগ্রাফার সরোজ খান। গতকাল রাত ২টো নাগাদ হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা যান তিনি। মৃত্যুকালে বয়স হয়েছিল ৭১ বছর।

গত ১৭ জুন থেকেই মুম্বইয়ের গুরু নানক হসপিটালে ভর্তি ছিলেন তিনি। শ্বাসকষ্টজনিত সমস্যা ছিল তাঁর। সেই সঙ্গে ছিল ডায়বেটিসও। যদিও যখন তাঁর করোনা পরীক্ষা করা হয়, তখন রিপোর্ট নেগেটিভই আসে। বুকে সর্দি জমেই শ্বাসকষ্ট শুরু হয় তাঁর। আগামী দুই তিনদিনের মধ্যেই হাসপাতাল থেকে ছাড়া পাওয়ার কথা ছিল সরোজ খানের।

প্রখ্যাত এই কোরিওগ্রাফারের বলিউড কেরিয়ার ছিল প্রায় চার দশক লম্বা, কাজ করেছেন ২০০০টির বেশি গানে। মাত্র তিন বছর বয়সে ব্যাকগ্রাউন্ড ডান্সার হিসেবে আত্মপ্রকাশ করেন। এরপর কোরিওগ্রাফার হিসেবে বড় ব্রেক পান ১৯৭৪ সালে, গীতা মেরা নাম ছবিতে। মিস্টার ইন্ডিয়ার হাওয়া হাওয়াই (১৯৮৭), তেজাব ছবির এক দো তিন (১৯৮৮), বেটা ছবির ধক ধক করনে লাগা (১৯৯২), দেবদাস ছবির ডোলা রে প্রভৃতি বিখ্যাত গানের কোরিওগ্রাফি তিনিই করেছিলেন। পেয়েছেন তিনটি জাতীয় পুরস্কার।

২০১৯ সালে করণ জোহরের প্রযোজিত কলঙ্ক ছবিতে একটি গানে মাধুরী দীক্ষিতকে কোরিওগ্রাফ তিনিই করেছিলেন। সেটাই তাঁর শেষ কাজ। সরোজ খানের স্বামী বি সোহনলাল, ছেলে হামিদ খান ও মেয়ে সুকন্যা খান জীবিত আছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here