kolkata news
Parul

নিজস্ব প্রতিনিধিশান্তিকুঞ্জে ফের অশান্তির অশনি সঙ্কেত! আজ, শনিবার ফের পূর্ব মেদিনীপুরের কাঁথির অধিকারী বাড়িতে যান সিআইডির চার আধিকারিক। পরিবারের সদস্য তথা সাংসদ তৃণমূলের দিব্যেন্দু অধিকারির সঙ্গে এলাকা পরিদর্শন করেন তাঁরা। বিজেপি নেতা শুভেন্দু অধিকারীর প্রাক্তন দেহরক্ষী শুভব্রত চক্রবর্তী খুনে এদিন ফের সিআইডি যায় শান্তিকুঞ্জে।

ads

২০১৮ সালের ১৩ অক্টোবর পুলিশ ব্যারাকে গুলিবিদ্ধ হন তৎকালীন তৃণমূল নেতা শুভেন্দু অধিকারীর প্রাক্তন দেহরক্ষী শুভব্রত। তাঁর মৃত্যুর পরে এলআইসির টাকাপয়সাও পরিবার তুলে নেন বলে দাবি শুভেন্দুর। সম্প্রতি স্বামীর রহস্য মৃত্যুর ঘটনার বিচার চেয়ে পুলিশের দ্বারস্থ হন প্রয়াত শুভব্রতের স্ত্রী। ওই ঘটনায় তদন্তে নামে সিআইডি। তদন্তকারীরা প্রথমে মৃতের পরিবারের সঙ্গে কথা বলেন। পরে শুভব্রতের সহকর্মীদের সঙ্গে কথা বলার সিদ্ধান্ত নেন তাঁরা।  সেই মতো বৃহস্পতিবার তমলুকের পুলিশ লাইনে সশরীরে উপস্থিত থাকতে শুভব্রতের সহকর্মীদের তলব করা হয়। দফায় দফায় জেরা করা হয় ন’জনকে।

গতকাল, শুক্রবারও শুভব্রতের সহকর্মীদের জেরা করে সিআইডি। বৃহস্পতিবার জেরা করা হয় তিন পুলিশ আধিকারিক ও আটজন কনস্টেবলকে। এঁরা প্রত্যেকেই শুভব্রতের সঙ্গে কাজ করতেন। ঘটনার দিন ঠিক কী ঘটেছিল, কে কোথায় ছিলেন, কী দায়িত্ব পালন করছিলেন, ঘটনার পর সহকর্মীদের প্রতিক্রিয়া কী ছিল, তা তাঁদের কাছে জানতে চান সিআইডির আধিকারিকরা।

এদিন দুপুরে শুভেন্দুর বাড়ি শান্তিকুঞ্জে যায় সিআইডি। চার সদস্যের দলটি ছবি তোলেন এলাকার। শান্তিকুঞ্জের গ্যারাজের ভিডিওগ্রাফিও করা হয়। তদন্তকারীদের সঙ্গে কথা বলতে দেখা যায় দিব্যেন্দুকে। তদন্তকারীরা তাঁকেও জিজ্ঞাসাবাদ করেন বলে সূত্রের খবর।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here