নিজস্ব প্রতিবেদক, ঘাটাল: বেশ বড়সড় বিপাকে পড়লেন রাজ্যের একসময়কার দাপুটে পুলিশ আধিকারিক ভারতী ঘোষ। তার বিরুদ্ধে আগেই অভিযোগ উঠেছিল সোনা পাচার করার। সেই ঘটনার তদন্তে নামা সিআইডি এবার ভারতী সহ তার স্বামী ও তার নিরাপত্তা রক্ষী সহ মোট ৯জনের বিরুদ্ধে চার্জশিট দাখিল করল ঘাটাল মহকুমা আদালতে। শুক্রবারই ওই জামিন অযোগ্য ধারার চার্জশিট জমা পড়েছে ঘাটাল আদালতে। ওই চার্জশিটে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে সোনা পাচার, বিশ্বাসঘাতকতা, প্রতারণা এমন একাধিক অভিযোগ আনা হয়েছে। উল্লেখ্য, জেলারই ঘাটাল মহকুমার দাসপুর থানার মামুদপুরের এক যুবকের দায়ের করা অভিযোগের ভিত্তিতে ২০১৮ এর ১ ফেব্রুয়ারী ঘাটাল আদালত সিআইডিকে একটি তদন্তের নির্দেশ দিয়েছিল। যেখানে সোনা কেনাবেচা সংক্রান্ত প্রতারণার অভিযোগ অনুসারে ঘাটাল মহকুমা আদালত ভারতী ঘোষ তার সঙ্গীদের বিরুদ্ধে তদন্তের নির্দেশ দিয়েছিল।

ওই ব্যক্তি অভিযোগ করেছিলেন নোটবন্দীর সময়ে পুলিশের সহযোগীতায় সোনা কিনে নেওয়া হলেও তাকে নাকি টাকা দেয়নি পুলিশ। এই কান্ডের পেছনে মাস্টারমাইন্ড নাকি ছিলেন ভারতী ঘোষ। সেই অভিযোগ করার পর ঘাটাল আদালত সিআইডিকে তদন্তের নির্দেশ দিয়েছিল। সেই কাণ্ডে তদন্তে নেমে সিআইডি তৎকালীন ভারতী ঘোষ ঘনিষ্ঠ %