ডেস্ক: সদ্য সমাপ্ত পঞ্চায়েত ভোটে এবার লাগামহীন সন্ত্রাসের সাক্ষী থেকেছে বাংলা৷ আরে সেই পঞ্চায়েত ভোটকে কেন্দ্র উত্তাল হয়ে উঠেছিল সোশ্যাল মিডিয়া৷ পঞ্চায়েত ভোটের সময় ফেসবুকে গুজব ছাড়ানোর অভিযোগে এবার সিআইডি জেরার মুখে পড়তে হল সিপিএম সাংসদ মহম্মদ সেলিমের পুত্র রাসেল আজিজকে৷ অভিযোগ, পঞ্চায়েত ভোটের দিন ফেসবুকে ভুয়ো পোস্ট করে উত্তেজনা আরও বাড়ানোর চেষ্টা করেছিলেন সেলিমপুত্র রাসেল৷

উল্লেখ্য, গত ১৪ মে পঞ্চায়েতে ভোট গ্রহণের দিন উত্তর দিনাজপুরের রায়গঞ্জে তৃণমূলের আশ্রিত দুস্কৃতিদের গুলিতে একজন প্রিসাইডিং অফিসার ও একজন পোলিং অফিসারের নিহত হওয়ার একটি ফোসবুক পোস্ট করা হয়। সেই পোস্টটি করেন রাজেল আজিজ। তিনি পোস্টটির নিচে অবশ্য লিখে দেন, ঘটনাটি যাচাই করা নয়। পরে অবশ্য পোস্টটি নিজেই ফেসবুক পেজ থেকে ডিলিট করেন রাসেল৷ তবে ততক্ষণে তা ভাইরাল হয়ে গিয়েছে৷ মহম্মদ সেলিম রাজ্য রাজনীতিতে খুব পরিচিত মুখ৷ খুব স্বাভাবিকভাবেই সাংসদের ছেলের পোস্ট খুব অল্প সময়েই মধ্যেই সোশ্যাল ভিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়ে। এই বিভ্রান্তিমূলক পোস্ট পঞ্চায়েত নির্বাচনকে আরও উত্তপ্ত করতে পারত। সেই কারণেই স্বত্বঃপ্রণোদিত হয়ে রাসেলের বিরুদ্ধে মামলা করে সিআইডি।

গত দিনতিন ধরে তাঁকে আইনি নোটিশ পাঠিয়ে তলব করা হয়েছিল সিআইডি’র পক্ষ থেকে। তবে তা এড়িয়ে যান সাংসদ পুত্র৷ সোমবার অবশ্য রাসেল সিআইডি’র তলব পাওয়ার পরই ভবানিভবনে আসেন এবং তদন্তকারীদের প্রশ্নের মুখোমুখি হন৷ তাঁকে ম্যারাথন জেরা করে তদন্তকারী আধিকারিকরা৷ যদিও এই মামলাকে স্বত্বঃপ্রণোদিত মামলা বলতে রাজি নন সাংসদ পুত্রের আইনজীবী। তাঁদের বক্তব্য, এই মামলা সম্পূর্ণ উদ্দেশ্যপ্রণোদিত। রাজনৈতিক কারণে ফাঁসানোর চেষ্টা৷

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here