kolkata news

 

নিজস্ব প্রতিনিধি, দক্ষিণ দিনাজপুর: আদিবাসী সংগঠনের দুই পক্ষের সংঘর্ষের পর দিনই এলাকা থেকে এক ব্যক্তির মৃতদেহ উদ্ধারে চাঞ্চল্য। ঘটনাটি ঘটেছে দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার বংশীহারি ব্লকের পাথরঘাটা এলাকায়। জানা গিয়েছে, এদিন পাথরঘাটা এলাকার একটি ইটভাটার পার্শ্ববর্তী পুকুর থেকে মৃতদেহটি উদ্ধার হয়। মৃত ওই ব্যক্তির নাম চুনিয়া ওঁরাও(৬৫)। তিনি ওই ইটভাটারই একজন শ্রমিক ছিলেন।

উল্লেখ্য, গতকাল আদিবাসী সংগঠন ‘ভারত জাকাত মাঝি পারগনা’-র একটি সাংগঠনিক বৈঠক আয়োজিত হয়েছিল ওই এলাকায়। বৈঠকে সংগঠনের বিদায়ী কমিটি এবং নবনির্বাচিত কমিটির মধ্যে চরম সংঘর্ষের সৃষ্টি হয়। মারামারিতে জখম হয়ে নতুন কমিটির সভাপতি আশিস মুর্মু-সহ ১০জন বংশীহারি ব্লকের রশিদপুর গ্রামীণ হাসপাতালে ভর্তি হন।

সেই ঘটনার রেশ কাটতে না কাটতেই পরদিনই ও এলাকার ইটভাটার পার্শ্ববর্তী পুকুর থেকে এক আদিবাসী ব্যক্তির মৃতদেহ উদ্ধারের ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়ায়। মৃত ব্যক্তির ছেলে শংকর ওঁরাও বলেন, গতকাল ইটভাটার ভেতরে আয়োজিত মিটিংয়ে গণ্ডগোল হয়েছিল। সেই গণ্ডগোলের ভেতরই পুকুরে স্নান করতে আসা আমার বাবাকে হয়তো বা মারধর করা হয়েছিল। বাবার শরীরে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। সঠিক তদন্তের দাবি জানাই। পুলিশ বিষয়টি খতিয়ে দেখছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here