নিজস্ব প্রতিবেদন, পূর্ব বর্ধমান: পঞ্চায়েত ভোটের সময় থেকেই প্রকাশ্যে এসেছে তৃণমূলের অন্দরের গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব। ভোটাভুটি পর্বের সমাপ্তি হলেও সেই গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব কিন্তু এখনও লেগেই আছে দলের মধ্যে। আর যার জেরেই প্রাণ হারাচ্ছে স্থানীয় স্তরের তৃণমূলের বহু নেতা ও কর্মীরা। এবার সেরকমই একটি ঘটনা ঘটেছে পূর্ব বর্ধমানের কেতুগ্রাম থানা এলাকায় বেরুগ্রামে। সামান্য গ্রাম বিবাদ থেকে গোষ্ঠীকোন্দল, তার জেরেই মৃত্যু হল তৃণমূল কর্মীর।

এই ঝামেলার সূত্রপাত দিন চারেক আগে। বেড়ুগ্রামের এক ব্যক্তির গরুগাড়ির সঙ্গে কুলুট গ্রামের একজনের মোটর বাইকের ধাক্কা লেগে ভেঙে যায় বাইকের টুল বাক্স। এই নিয়ে দুই পক্ষের মধ্যে বিবাদ চলছিল। আর তার জেরেই এই ঘটনা ঘটিয়েছে অভিযুক্ত খোকন সেখ। মৃতের পরিবারের অভিযোগ, মঙ্গলবার সন্ধ্যায় বাজারে বন্ধুদের সঙ্গে বসে ছিল নূর ইসলাম সেখ। হঠাৎই পাশের কুলুট গ্রামের তৃণমূল নেতা খোকন সেখ দলবল নিয়ে চড়াও হয়। রড,লাঠি নিয়ে অর্তকিতে খোকন সেখের নেতৃত্বে হামলা করে কয়েকজন দুষ্কৃতি। মারধর করা হয়েছে নূর ইসলাম সেখ সহ বাকি সঙ্গীদের। এই হামলায় গুরুতর ভাবে জখম হন নূর ইসলাম এবং আহত হন তার ৪ সঙ্গী। আহতদের প্রথমে স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। প্রাথমিক চিকিৎসার পর বাকীদের ছেড়ে দিলেও নূর ইসলাম সেখের ধীরে ধীরে অবস্থার অবনতি হয়। এরপর তাকে বর্ধমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হলে সেখানেই র