kolkata news

 

নিজস্ব প্রতিনিধি, আলিপুরদুয়ার: আলিপুরদুয়ারের তপসিখাতা আয়ূস হাসপাতালে (কোভিড-১৯ হাসপাতাল)রবিবার এক ব্যক্তির মৃত্যু হয় বলে জানা গেছে। ওই ব্যক্তিকে রাতেই গভীর রাতেই আলিপুরদুয়ার ১ নম্বর ব্লকের জলদাপাড়া প্রধানপাড়ায়   কবর দেওয়ার জন্য পুলিশ নিয়ে আসে দাবি এলাকাবাসীর। ঘটনা জানাজানি হতেই গ্রামবাসীরা সেখানে জড়ো হয়। তাদের মধ্যে ব্যাপক আতঙ্ক ছড়ায়। পুলিশ মৃত ওই ব্যক্তিকে কবর দিতে এলে বাধা দেন গ্রামবাসীরা। পুলিশের সঙ্গে খণ্ডযুদ্ধ বাধে এলাকার বাসিন্দাদের।

অভিযোগ, প্রধানপাড়ায় তোর্ষার চরে রাতে পুলিশের তিনটি গাড়িতে আগুন ধরিয়ে দেয় জনতা। তারা পুলিশকে ধারালো অস্ত্র-সহ, লাঠি, পাথর দিয়ে মারতে থাকে। পুলিশের তুলনায় স্থানীয় মানুষ বেশি থাকায় এলাকা থেকে পুলিশ পালিয়ে প্রাণ বাঁচায় বলে জানা গেছে। তবে স্থানীয় সূত্রে খবর,  ঘটনায় প্রায় দশ থেকে বারোজন পুলিশকর্মী জখম হয়েছেন। অবশ্য, পুলিশের বিরুদ্ধে আবার গুলি চালানোর অভিযোগ এনেছেন গ্রামবাসীরা। অভিযোগ, পুলিশের গুলিতে সাহারুখ আলম নামে এক যুবক গুরুতর জখম হয়েছেন। তাকে চিকিৎসার জন্য আলিপুরদুয়ার জেলা হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

সোমবার দুপুরে বিশাল পুলিশ বাহিনী নিয়ে আলিপুরদুয়ার জেলা পুলিশ সুপার অমিতাভ মাইতি ঘটনাস্থলে পরিদর্শনে আসেন। সেখানে তিনি গ্রামবাসীদের সঙ্গে কথা বলেন। এলাকার মাউশের সঙ্গে আলোচনায় ব্যাপারটি মিটমাট হয়। পুলিশ সুপার বলেন, এখানে কবরস্থান করার কথা ছিল। তা মুলতুবি করা হল। যারা এই ঘটনার সঙ্গে যুক্ত, তাদের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে। পুলিশ ঘটনার তদন্ত করছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here