news bengali kolkata

নিজস্ব প্রতিবেদক, মালদা: মোটা টাকা ঘুষ খেয়ে বাংলাদেশি ব্যবসায়ীকে পালাতে সাহায্য করার অভিযোগে ক্লোজ করা হল ইংরেজবাজার থানার আইসিকে। সাসপেন্ড ৩ পুলিশ অফিসার৷ শনিবার রাতে পুলিশ সুপারের নির্দেশে তাঁদের ক্লোজ করা হয়৷ আপাতত অস্থায়ীভাবে ইংরেজবাজার থানার দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে এক অফিসারকে৷ গোটা ঘটনাকে কেন্দ্র করে জেলা পুলিশ মহলে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে৷ যদিও, পুলিশ সুপারের দাবি, অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে তদন্তে গাফিলতির অভিযোগ রয়েছে।

কয়েক মাস আগে ইংরেজবাজার থানার আইসির দায়িত্ব নেন অমলেন্দু বিশ্বাস৷ পুলিশ সূত্রে খবর, মাস দুয়েক আগে কমলাবাড়ি মোড় এলাকায় ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়কের বাইপাসে এক বাংলাদেশিকে গ্রেফতার করে ইংরেজবাজার থানার পুলিশ৷ তদন্তে মামলার গুরুত্ব কমানোর জন্য সেই বাংলাদেশির সঙ্গে বিপুল পরিমাণ টাকার রফা করা হয়৷ অভিযোগ, ওই মামলার আসল তদন্ত ধামাচাপা পড়ে যায়৷ মামলার তদন্তকারী অফিসার ছিলেন এসআই সুবীর সরকার৷ জেলা পুলিশ সুপার অলোক রাজোরিয়ার নির্দেশে ইংরেজবাজার থানার আইসি অমলেন্দু বিশ্বাসকে ক্লোজ করা হয়েছে। সুবীর সরকার, এসআই নরবু ডুকপা ও তনয় চক্রবর্তীকে সাসপেন্ড করা হয়েছে।

পুলিশ সুপার অলোক রাজোরিয়া বলেন, ‘তদন্তে গাফিলতির অভিযোগে ইংরেজবাজার থানার আইসি এবং আরও তিন অফিসারকে ক্লোজ ও সাসপেন্ড করা হয়েছে৷ তাঁদের বিরুদ্ধে বিভাগীয় তদন্ত শুরু হয়েছে৷ তদন্ত চলাকালীন তাঁরা সাসপেন্ড থাকবেন৷ ইতিমধ্যে এক অফিসারকে অস্থায়ীভাবে নিয়োগ করা হয়েছে’ থানার দায়িত্বে। ইংরেজবাজার থানার ক্রাইম মনিটারিং সেলের দায়িত্বপ্রাপ্ত অফিসার ত্রিগুণা রায়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here