kolkata news

নিজস্ব প্রতিনিধি: গত তিনদিনের ছবিটারা বদল হল না। নাগরিকত্ব আইনের প্রতিবাদে সোমবারও রাজ্যের বিভিন্ন এলাকায় ফের শুরু হয়েছে অবরোধ, বিক্ষোভ। বন্ধ ট্রেন চলাচল। অবরুদ্ধ রাস্তা। বজবজ, ক্যানিং, মহিষাদল, নন্দকুমার, মেচেদা, নিমতৌড়ি, মুরারই, মুর্শিদাবাদের ওমরপুরে শুরু হয়ে যায় অবরোধ বিক্ষোভ। শিয়ালদা দক্ষিণ শাখার ডায়মন্ড হারবার ও বজবজ সেকশনে ওভারহেড তারে কলাপাতা ফেলে আটকানো হয় ট্রেন। ফলে আটকে যায় একাধিক ট্রেন।

যে ট্রেন বন্ধ
এ ছাড়া হাওড়া-সেকেন্দ্রাবাদ ফলকনামা এক্সপ্রেস, হাওড়া-কন্যাকুমারী এক্সপ্রেস, সাঁতরাগাছি-পুদুচেরি এক্সপ্রেসও বাতিল করা হয়েছে। আজিমগঞ্জ প্যাসেঞ্জার, কাটোয়া-নিমতিতা প্যাসেঞ্জার, শিয়ালদহ-জঙ্গিপুর, আজিমগঞ্জ-সাহিবগঞ্জ, সাহিবগঞ্জ-ভাগলপুর, মালদা টাউন-আজিমগঞ্জ- সোমবার এই ট্রেনগুলোও বাতিল থাকছে বলে ঘোষণা করেছে রেল।

লোকাল ট্রেন
আগের দু’দিনের মতো হাওড়া ও শিয়ালদা থেকে বাতিল করা হল বহু দূরপাল্লার ট্রেন। থমকে আছে লোকাল ট্রেন পরিষেবাও। একাধিক স্টেশনে অবরোধ শুরু হয়েছে শিয়ালদা দক্ষিণ শাখায়। রবিবার আক্রা স্টেশনে বিক্ষোভকারীদের যে তাণ্ডব চলেছিল, তার জেরে সোমবারও বন্ধ রয়েছে বজবজ শাখার ট্রেন চলাচল।

kolkata news

পশ্চিম মেদিনীপুর
এনআরসি ও নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের প্রতিবাদে উত্তপ্ত পশ্চিম মেদিনীপুরের দাসপুর থানার বকুলতলা রাজ্য সড়ক। সকাল থেকে রাজ্য সড়কে টায়ার জ্বালিয়ে বিক্ষোভে শামিল এনআরসি বিরোধীরা। রাস্তা অবরোধ করে বিক্ষোভের ফলে ব্যাপক যানজট সৃষ্টি হয়েছে বকুলতলা থেকে দাসপুর যাওয়ার রাজ্য সড়ক। পরিস্থিতি সামলাতে ঘটনাস্থলে পৌঁছেছে দাসপুর থানার বিশাল পুলিশবাহিনী।

পূর্ব মেদিনীপুর
এনআরসি ও সিএএ-এর বিরুদ্ধে পথ অবরোধ করল অল ইন্ডিয়া মাইরোনিটি অ্যাসোশিয়েসন। অবরুদ্ধ জাতীয় সড়ক। সপ্তাহের প্রথম দিন সোমবার কার্যত বনধ পালন করছে সারা জেলা জুড়ে। শিল্পাঞ্চল হলদিয়া ও পর্যটন নগরী দিঘা যাওয়ার পথে ৪১ নম্বর জতীয় সড়কে রাধামনি, নন্দকুমার ও কাপাসএড়্যাতে টায়ার জ্বালিয়ে চলে অবরোধ। পাশাপাশি হলদিয়ার বাসুলিয়াতে ট্রেন অবরোধ করে স্থানীয় বাসিন্দারা। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী, অমিত শাহ, ও রাজ্যপালের কুশপুত্তলিকা পোড়ানো হয় জাতীয় সড়কের ওপর।

উত্তর ২৪ পরগনা (রাজারহাট)
নাগরিক পঞ্জি ও নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের (সিএএ) প্রতিবাদে রাজারহাটের চিনারপার্কে পথ অবরোধ করল স্থানীয় সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের মানুষজন। সকাল ৯টা থেকে সাড়ে দশটা অবধি এই পথ অবরোধ চলে। নিউটাউনের মূল রাস্তায় এই অবরোধ হওয়ায় ব্যাপক যানজট তৈরি হয়। চিনার পার্ক অবরুদ্ধ হয়ে পড়ে। এর প্রভাব পড়ে ভিআইপি রোড, রাজারহাট মেন রোড-সহ আশপাশের বিভিন্ন রাস্তায়। কৈখালি থেকে বাগুইআটি পর্যন্ত ব্যাপক যানজট সৃষ্টি হয়।

নদিয়া
CAA-এর প্রতিবাদে রাস্তায় টায়ার জ্বালিয়ে বিক্ষোভ নদিয়ার নাকাশিপাড়া থানার নাগাদিতে। সোমবার সকালে নাগাদিতে ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়কে এই বিক্ষোভ করেন স্থানীয় মানুষজন। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে এলাকায় মোতায়েন আছে বিশাল পুলিশ বাহিনী। নদিয়ার নাকাশিপাড়া জাতীয় সড়কে সকাল থেকে এনআরসি’র প্রতিবাদে বিক্ষোভ শুরু করলেন স্থানীয় বাসিন্দারা ও পঞ্চায়েত প্রধান।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here