মহানগর ওয়েবডেস্ক: ‘ওনারা নভেম্বর অবধি করেছেন তো? আমি এটা আগামী বছর জুন অবধি বাড়িয়ে দিলাম। ফ্রি রেশন।’ ঠিক এই ভাষাতেই কেন্দ্রকে টেক্কা দিয়ে সাংবাদিক বৈঠক করে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়ে দিলেন, রাজ্যবাসীর মুখে খাবার তুলে দিতে কোনরকম খামতি রাখতে রাজি নন তিনি। পাশাপাশি কেন্দ্রকে তোপ থেকে এটাও জানিয়ে দিলেন, যে রেশন ওনারা দিচ্ছেন তা ৬০ শতাংশ মানুষ পাচ্ছেন ৪০ শতাংশ মানুষ পাচ্ছেন না।

প্রধানমন্ত্রীর জাতির উদ্দেশ্যে ভাষণের ঠিক পর মঙ্গলবার নবান্নে সাংবাদিক সম্মেলন করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেখানেই প্রশ্ন ওঠে কেন্দ্রের রেশন দেওয়ার সময়সীমা বৃদ্ধি নিয়ে। তার উত্তরে মুখ্যমন্ত্রী জানান, ‘ওনারা এফসিআই থেকে যে চাল নিচ্ছেন এবং ৫ কেজি করে চাল দিচ্ছেন সেটা নভেম্বর পর্যন্ত দেবেন বলেছেন। যদিও ওনাদের চালের গুণগতমান খারাপ। আমাদেরটা অনেকটা ভালো। কারণ আমরা চাষিদের থেকে চাল নিই। ওনারা নভেম্বর অবধি করেছেন তো? আমি এটা আগামী বছর জুন অবধি বাড়িয়ে দিলাম। ফ্রি রেশন।’ পাশাপাশি তিনি আরো বলেন, ‘ওনারা আজ দেবেন কাল দেবেন না। আমরা আগামী বছরের জুন মাস পর্যন্ত দেব যাতে মানুষ অন্তত খাদ্য খাবার খেয়ে বাঁচতে পারে।’ পাশাপাশি মুখ্যমন্ত্রী এটাও জানান, ‘১০০ শতাংশ কেন্দ্রের চাল মানুষ পাচ্ছে বলে যে দাবি করা হয়েছে সেটা সম্পূর্ণ ভুল। পশ্চিমবঙ্গে ৬০ শতাংশ মানুষ এই চাল পাচ্ছে। আর বাকি ৪০ শতাংশ মানুষ পাচ্ছে না।’

প্রসঙ্গত, দেশজুড়ে ক্রমশ ভয়াবহ হয়ে উঠছে করোনা পরিস্থিতি। এহেন অবস্থায় মানুষের পেটে ভাতে যাতে টান না পড়ে তার জন্য মঙ্গলবার জাতির উদ্দেশ্যে ভাষণ দিতে গিয়ে নভেম্বর রেশনের সময়সীমা বাড়ানোর কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। পাশাপাশি এক দেশ এক রেশন কার্ডের কথাও জানান তিনি। যাতে ভিন রাজ্যে বা এলাকার বাইরে অন্য কোথাও গিয়ে থাকলেও মানুষের সরকারি রেশন পেতে কোনও সমস্যা না হয়। তবে এক দেশ এক রেশন কার্ড নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী সেভাবে কিছু না জানালেও। রেশনের দিক থেকে রাজ্য যে কেন্দ্রের তুলনায় পিছিয়ে থাকবে না তা স্পষ্ট জানিয়ে দিলেন এদিন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here