ডেস্ক: বিরোধী দলগুলি একপ্রকার চক্রান্ত করেই যে পঞ্চায়েত ভোট ভেস্তে দিতে চাইছে, তা স্পষ্ট করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ ভোট প্রক্রিয়া বিলম্ব করা যে আইনি প্যাঁচ খেলছে বিরোধীরা, তার কঠোর সমালোচনাও করেছেন মুখ্যমন্ত্রী৷ অযথা ভোট প্রক্রিয়া বিলম্ব করার উন্নয়ন থমকে যাচ্ছে বলে মনে করেম মুখ্যমন্ত্রী৷ আর উন্নয়ন ব্যীহত হওয়ার জন্য রাজ্যের মানুষের কাছে ক্ষমা চেয়ে নেন তিনি৷ সব মিলিয়ে পঞ্চায়েত ভোট যে পিছিয়ে যেতে চলছে, তা মুখ্যমন্ত্রীর বক্তব্যেই স্পষ্ট৷

উল্লেখ্য, হাইকোঠে ঝুলে রয়েছে পঞ্চায়েত ভোটের ভবিষ্যত৷ আইনি জটে নির্দিষ্ট সময়ে কিমশনের পূর্ব ঘোষিত নির্ঘন্ট মেনে পঞ্চায়েত ভোট হওয়া এখন বিশবাঁও জলে৷ অন্তত প্রথম পর্যায়ের পয়লা মে যে ভোট গ্রহণ হওয়ার কথা ছিল, তা কার্যত অসম্ভব। আর পুরো ঘটনার জন্য বিরোধীদের কাঠগড়ায় তুলেছেন মুখ্যমন্ত্রী৷

মঙ্গলবার দুপুরে অবশ্য হাইকোর্টের সিঙ্গল বেঞ্চে পঞ্চায়েত ভোটের ভবিষ্যত ঠিক হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।এদিন দুপুর ২টো থেকে শুরু হবে শুনানি। দ্রুত মামলার নিষ্পত্তি করতে নির্দেশ দিয়েছে ডিভিশন বেঞ্চ। প্রয়োজনে প্রতিদিন শুনানির কথাও বলেছে। তবে এই আইনি প্রক্রিয়ার কারণে পঞ্চায়েত নির্বাচন বিলম্বিত হবে পারে বলে মনে করছে আইনি বিশেষজ্ঞদের একটা মহল৷

পঞ্চায়েত ভোটকে কেন্দ্র করে এই আইনি জটিলতা তৈরি হওয়ার জন্য বিরোধী দলগুলির দিকে আঙুল তুলে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, পঞ্চায়েত ভোট নিয়ে এই জটিলতা তৈরির জন্য সম্পূর্ণভাবে দায়ী বিরোধী দলগুলি। ভোটকে ভয় পাচ্ছে বিরোধী দলগুলি৷ পঞ্চায়েত ভোটের মনোনয়নকে কেন্দ্রে করে বিরোধী দলগুলি অযথা কুৎসা করছে বলেই মনে করেন মুখ্যমন্ত্রী৷

মুখ্যমন্ত্রী আক্ষেপের সঙ্গে বলেন, পঞ্চায়েত নির্বাচন নিয়ে আইনি জটের কারণে বাংলার উন্নয়ন থমকে গেছে৷ নির্বাচন ঘোষণার পর থেকে আদর্শ আচরকণবিধি লাগু হয়ে যাওয়ায় উন্নয়নের কোনও নতুন কাজ শুরু করা যাচ্ছে না। জেলায় গিয়ে বৈঠক করতে পারছেন না তিনি৷ সব মিলিয়ে বিরোধীদের চক্রান্তের জন্যই বাংলার উন্নয়ন ব্যাহত হচ্ছে বলে দাবি করেন মমতা৷

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here