ডেস্ক: গতকাল নদিয়ায় প্রশাসনিক বৈঠকের পর আজ সভায় বক্তব্য রাখতে উঠে বিজেপিকে চাঁচাছোলা ভাষায় আক্রমণ করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কেন্দ্রের একাধিক জনস্বার্থ বিরোধী প্রকল্পের খতিয়ান তুলে ধরে নদিয়ার জন্য বেশকিছু উন্নয়নমূলক প্রকল্পের কথা ঘোষণা করেন তিনি। একই সঙ্গে ছড়া কেটে মমতা এও জানিয়ে দেন, ”এমন রাজ্য কোথাও খুঁজে পাবে নাকো তুমি, সকল রাজ্যের সেরা সে আমার বঙ্গভূমি।”

একনজরে দেখে নিন এদিনের সভায় কী বললেন মুখ্যমন্ত্রী…

  • উন্নয়নের জোয়ার বইছে নদিয়া জুড়ে। নবদ্বীপে ৮০ কোটি ব্যয়ে জল প্রকল্প ঘোষণা, ৩০ লক্ষ পরিবারকে ১২০০ কোটি সাহায্য। বিশ্ববিদ্যালয়ে কন্যাশ্রীর মেয়েদের জন্য স্কলারশিপ।’
  • বাংলা আবাস যোজনায় তৈরি হয়েছে ২৫ লক্ষ্য বাড়ি। রাজ্যে ১৩ হাজার কিমি রাস্তা তৈরি হয়েছে, মোহনপুরে প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উদ্বোধন। ১০০ দিনের কাজে বাংলা প্রথম স্থানে। বীরনগরে তৈরি হবে নয়া সাব তাপবিদ্যুৎ স্টেশন। বীরনগর ও করিমপুরে ২টি মডেল থানা তৈরি হবে। ৫৫টি নদী ঘাটে স্থায়ী জেটি তৈরি হয়েছে।
  • আসন্ন পঞ্চায়েত ভোটে তৃণমূলকে জেতান, উন্নয়নের কাজ এগিয়ে নিয়ে যেতে হবে। আইসিডিএসে ৯০% টাকা বন্ধ করেছে কেন্দ্র, আমরা টাকা দিয়ে প্রকল্প চালু রেখেছি।
  • বিজেপির মতো দাঙ্গা করার লোক কম আছে, বিজেপির কথা শুনে দাঙ্গা বাধাবেন না। হিন্দু-মুসলিম নিয়ে রাজনীতি করে বিজেপি।
  • সবার জন্য আলো প্রকল্পে বিদ্যুৎ দেওয়া হবে, ন্যায্যমূল্যের ওষুধের দোকান হয়েছে। নদিয়ায় ১০টি কিষাণ মান্ডি হয়েছে।
  • সারা দেশে ১২ হাজার কৃষকের আত্মহত্যা। বিজেপি শাসিত রাজ্যে কৃষক আত্মহত্যা সবচেয়ে বেশি। একমাত্র বাংলায় শান্তিতে রয়েছে কৃষকেরা।
  • ব্যাঙ্কে নিজেদের টাকা রাখাও এখন নিরাপদ নয়। মানুষ কোথায় টাকা রাখবে? নকুলদানা বিক্রিতেও এখন জিএসটি লাগছে। নীতি না বদলালে কেন্দ্রের বিরুদ্ধে আন্দোলন চালানো হবে।
  • কৃষকদের অভাবী বিক্রি করতে তহবিল করা হবে, কৃষকদের বার্ধক্যভাতা ১ হাজার টাকা করা হয়েছে।
  • আমাদের সরকার কোনও জনবিরোধী সিদ্ধান্ত নেয় না, আমরা করের বোঝা বাড়াইনি।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here