ডেস্ক: সপ্তাহখানেক আগে ভোটের দিনক্ষণ ঘোষণা করেছেন নির্বাচন কমিশন। সেই সঙ্গে দেশজুড়ে লাগু হয়েছে আদর্শ আচরণ বিধি। ফলে কোনও নতুন প্রকল্পের প্রচার বা সূচনা এখন বিধির আওতায়। কিন্তু নির্বাচনের আগে যে সব প্রকল্পের কথা মমতা ঘোষণা করেছেন, তা থেকে যেন বঞ্চিত না হয় সাধারণ মানুষ। নির্বাচন কমিশনের কাছে এই বিষয়টি খতিয়ে দেখার আর্জি জানালেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

সোমবার নবান্ন থেকে বের হওয়ার সময় বিষয়টি নিয়ে সাংবাদিকদের সামনে মুখ খোলেন মমতা। সেখানে তিনি বলেন, নির্বাচনের আগে যে প্রকল্পগুলির কথা রাজ্য সরকার ঘোষণা করেছে, সেগুলি যাতে বন্ধ না হয়ে যায় সেদিকে নজর রাখতে হবে। প্রসঙ্গত, মাসখানেক আগেই কেন্দ্রীয় সরকারের প্রকল্পকে টেক্কা দিয়ে ‘কৃষক বন্ধু’ প্রকল্পের ঘোষণা করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। ‘কৃষক বন্ধু’ প্রকল্পে ৬০০০ টাকা করে কৃষকদের দেওয়ার কথা। কিন্তু আদর্শ আচরণ বিধি লাগু হয়ে যাওয়ার ফলে সেই টাকা কৃষকদের দেওয়া যাবে কিনা, তা নিয়ে জটিলতা সৃষ্টি হয়েছে। সেই প্রসঙ্গ টেনে মমতা এদিন বলেন, নির্বাচনের নামে প্রকল্পের টাকা বা কোনও পরিষেবা বন্ধ হয়ে গেলে সাধারণ মানুষ ক্ষতিগ্রস্থ হবে। আমরা চাই মানুষ যেন বঞ্চিত যেন না হয়। যেসব প্রকল্প নির্বাচনের আগে শুরু হয়েছে, সেগুলো যেন বন্ধ না হয়।’

এই দিকে নির্বাচন কমিশনের দৃষ্টি আকর্ষণ করে মমতা বলেন, ‘কমিশনের কাছে অনুরোধ করছি যাতে কৃষক বন্ধু, রূপশ্রী, সমব্যথী, স্বাস্থ্যসাথী সহ আরও অন্যান্য প্রকল্প চালু থাকুক।’ একই সঙ্গে তিনি জানিয়ে রাখেন, নির্বাচন ঘোষণা হওয়ার পর সহায়ক মূল্যে কৃষকদের কাছ থেকে আলু কেনা বন্ধ হয়ে গেলেও ধান সংগ্রহের বিষয়ে রাজ্য অনুমতি চেয়েছে কমিশনের। এদিন রাজ্যবাসীকে দোল উৎসবের আগাম শুভেচ্ছাও জানান মুখ্যমন্ত্রী।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here