news bengali

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: করোনার কোপ এবার কলকাতা পুরসভার বাজেটেও। অতিমারিতে বিভিন্ন খাতে খরচ হয়েছে মাত্রাতিরিক্ত। যার জেরে ১৭০.৬৬ কোটি টাকার ঘাটতি থেকে গিয়েছে নয়া বাজেটে। যদিও এই ঘাটতি মেনে নিয়েও প্রত্যেক খাতে বরাবরের মতোই নির্দিষ্ট পরিমাণ অর্থ বরাদ্দ করা হয়েছে বলে জানান কলকাতা পুরসভার প্রশাসক ফিরহাদ হাকিম।

প্রত্যেক বছর বাজেট পেশ হয়ে থাকে নির্দিষ্ট পরিকল্পনা মাফিক। সেক্ষেত্রে বাজেট পেশের ক্ষেত্রে সাধারণত ঘাটতি থাকে না। কিন্তু এবছর প্রথম থেকেই করোনা ও আমফানের কারণে জোড়া দুর্যোগের প্রভাব পড়েছে বাজেটে। যদিও তার পরেও  কোথাও খুব একটা কিছু কমানো বাড়ানো হয়নি। অন্তত তেমনটাই দাবি পুর কর্তৃপক্ষের।

এবিষয়ে ফিরহাদ হাকিম জানান, পুরসভার কঞ্জারভেন্স ও স্বাস্থ্য বিভাগ খাতে করোনা ও আমফানের জন্য বেশি খরচ হয়েছে। কিন্তু তা সত্বেও ঘাটতি রেখে বাজেট পেশ করা হয়েছে। কারণ এই বাজেট পেশ না হলে অক্টোবর মাস থেকে সব কাজ বন্ধ হয়ে যেত। তাই ঘাটতি মেনে নিয়েই তড়িঘড়ি বাজেট পেশ করা হল বলেই জানান তিনি।

উল্লেখ্য, বাজেট পেশের জন্য এতদিন ধরে সুপ্রিম কোর্টের রায়ের ওপর অপেক্ষা করতে হয়েছে পুরসভাকে। পরে হাইকোর্টের রায়কে সমর্থন জানায় সুপ্রিম কোর্ট। এর পরই দ্রুত বাজেট পেশের সিদ্ধান্ত নেয় পুরকর্তৃপক্ষ। এরপরে ঘাটতি রেখেই, মার্চ মাস পর্যন্ত বাজেট পেশ করা হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here