news bengali

মহানগর ওয়েবডেস্ক: লকডাউনের নিয়মবিধি না মানার অপরাধে এক কেন্দ্রীয় বাহিনীর জওয়ানকে পুলিশ স্টেশনে নিয়ে শিকলে বেঁধে রাখার অভিযোগ। ঘটনাটি ঘটেছে কর্ণাটকের বেলাগাভীতে। ইতিমধ্যেই এই নিয়ে কেরলের ডিজিপিকে চিঠি লিখেছেন সেন্ট্রাল রিজার্ভ পুলিশ ফোর্সের এডিজি।

সূত্রের খবর, গত ২৩ এপ্রিল বেলাগাভীতে নিজের বাড়ির বাইরে বাইক পরিষ্কার করছিলেন কোবরা (কমান্ডো ব্যাটালিয়ন ফর রেসলিউট একশন) জওয়ান শচীন সাবন্ত। সেই সময় মুখে মাস্ক ছিল না তাঁর। আর এতেই টহলদার কিছু পুলিশ কর্মীর সঙ্গে বচসায় জড়ান তিনি, যা হাতাহাতির রূপ নেয়। আর এরপরেই ওই জওয়ানকে আটক করে পুলিশ।

ইতিমধ্যেই ওই জওয়ানের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করেছে পুলিশ। কিন্তু তাঁকে শিকলে বেঁধে রাখার ছবি কোনও ভাবে ভাইরাল হয়ে যায়। আর এতেই প্রবল সমালোচনার মুখে পড়েছে কর্ণাটক পুলিশ। একজন কোবরা জওয়ানকে কেন থানার মধ্যে শিকলে বেঁধে রাখা হবে সেই নিয়ে প্রশ্ন উঠছে।

কোবরা জওয়ানের সঙ্গে এহেন আচরণে ক্ষুব্ধ অন্যান্য জওয়ানরাও। ট্যুইটারে সিআরপিএফের এক অফিসার লেখেন, ‘২০৭ কোবরা বাহিনীর কমান্ডো শচীন সাবন্ত ছুটিতে বাড়ির বাইরে বাইক ধোয়ার সময় পুলিশের সঙ্গে হাতাহাতিতে জড়ান। তাঁকে এখন শিকলে বেঁধে রেখেছে পুলিশ। এই কাজ সমগ্র সিআরপিএফ বাহিনীর অপমান।’

প্রসঙ্গত, ওই জওয়ানের বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩৫৩, ৫০৪ ও ৫০৫ ধারায় মামলা রুজু করেছে পুলিশ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here