নিজস্ব প্রতিবেদক, বর্ধমান:  বর্ধমান বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের প্রশ্ন ফাঁসের ঘটনায় এবং দায়িত্বে অবহেলা করায় বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের বিভাগীয় প্রধানকে সরিয়ে দিল বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। ঘটনার কথা স্বীকার করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য নিমাই সাহা। তিনি জানান, বাংলা বিভাগের বিভাগীয় প্রধান সঙ্গীতা সান্যালকে তাঁর দায়িত্বের প্রতি অবহেলার জন্য সরিয়ে দেওয়া হয়েছে।

এ ব্যাপারে বিশ্ববিদ্যালয়ের ইসি মিটিংয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। সঙ্গীতা সান্যালের পরিবর্তে এই দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে মলয় রক্ষিতকে। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে তীব্র আলোড়ন সৃষ্টি হয়। বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা গিয়েছে, সম্প্রতি বাংলা বিভাগের বিভাগীয় প্রধান অরিন্দম চ্যাটার্জ্জীকে সরিয়ে মাত্র ৫ মাস আগে হুগলীর মহিলা কলেজের অধ্যাপিকা সঙ্গীতা সান্যালকে এই দায়িত্বে বসানো হয়। সম্প্রতি বাংলা বিভাগের পার্ট -২ এর একটি পেপারের প্রশ্নপত্র ফাঁস হওয়ার অভিযোগ ওঠে। আর সেই ঘটনায় সঙ্গীতা সান্যালের বিরুদ্ধে প্রশ্ন ফাঁসের অভিযোগ ওঠে।

 

জানা গিয়েছে, সম্প্রতি বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের পার্ট-ওয়ানের পরীক্ষার সময় পার্ট -২ এর একটি পেপার চলে আসে ছাত্রছাত্রীদের হাতে। গোটা বিষয়টি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রেস বিভাগ এবং প্রশ্নপত্রের প্রুফ রিডারের দায়িত্বজ্ঞানহীনতার অভিযোগ উঠলেও এ ব্যাপারে প্রেস বিভাগ বা ওই প্রুফ রিডারকে বিশ্ববিদ্যালয়ের তরফে কিছুই বলা হয়নি বলে অভিযোগ। যদিও এ ব‌্যাপারে সঙ্গীতা সান্যাল জানান, তাঁর কি অপরাধ সেটাই তিনি বুঝতে পারলেন না। প্রশ্ন ফাঁসের ঘটনা সামনে আসতেই তিনি দ্রুত ব্যবস্থা নেন এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের উর্ধ্ব কর্তৃপক্ষকে জানান। কিন্তু তারপরেও কেন তাঁর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হল তা তিনি বুঝতে পারছেন না। এ ব্যাপারে তিনি বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলোচনা করবেন বলে জানিয়েছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here