ডেস্ক: নয়া নির্দেশিকায় এবার লাইসেন্সের বিভাজনে ইতি টানল কেন্দ্র। কেন্দ্রীয় সড়ক পরিবহণ মন্ত্রকেরে তরফে জারি করা নতুন নির্দেশিকা অনুযায়ী, এখন থেকে সাধারণ লাইসেন্সের চালানো যেতে পারবে বাণিজ্যিক গাড়ি। কেন্দ্রের এই নির্দেশিকায় ঘুচল বাণিজ্যিক লাইসেন্সের জটিলতা। সাধারণ লাইসেন্সে খুব সহজেই এবার রাস্তায় গাড়ি নামাতে পারবেন বেকার যুবক যুবতীরা।

এতদিন পর্যন্ত সাধারণ লাইসেন্সের সঙ্গে বাণিজ্যিক লাইসেন্সের বিপুল ফারাক ছিল। ট্যাক্সি, অটো রিকশা, ই-রিকশার মতো বাণিজ্যিক ক্ষেত্রে যানবাহন চালাতে গেলে আবশ্যক ভাবে প্রয়োজন পড়ত বাণিজ্যিক লাইসেন্সের। তবে তা জোগাড় করতে গেলেও সমস্যা কম ছিল না। এই লাইসেন্স পেতে গেলে অন্তত ১ বছরের পুরনো সাধারণ লাইসেন্স থাকতে হত চালকের। থাকত দুর্নীতিও। তবে এই নয়া নিয়মে এখন থেকে লাইসেন্স হাতে পেয়েই বাণিজ্যিক গাড়ি চালাতে পারবেন চালকরা। কেন্দ্রের দাবি নতুন এই নির্দেশিকার ফলে দেশে কর্ম সংস্থানের সুযোগ আরও বাড়বে। তবে ছোট গাড়ির ক্ষেত্রে এই সুবিধা দিলেও, আগের মতো বাস ও ট্র্যাকের মতো গাড়ি গুলির ক্ষেত্রে বাণিজ্যিক লাইসেন্স বাধ্যতামূলক থাকবে।

অন্যদিকে বিশেষজ্ঞদের ধারনা, কেন্দ্রের এই নয়া নির্দেশিকার ফলে রাস্তায় যানবাহনের পরিমান আরও ব্যাপকভাবে বাড়বে। যার ফলে বাড়বে দুর্ঘটনাও। তবে এই দাবি মানতে নারাজ সরকার। সরকারে তরফে দাবি করা হয়েছে, একটি ট্যাক্সি রাস্তায় নামা মানে ৬ টি প্রাইভেট গাড়ির সমান কাজ করা। সুতরাং রাস্তায় গাড়ি বাড়বে এই যুক্তি সংতিহীন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here