ডেস্ক: সর্বদাই ধর্ম-কর্ম থেকে দূরে থাকাই চিরাচরিত রেওয়াজ কমিউনিস্টদের। কিন্তু তারাই কিনা বাংলার দুর্গাপুজোর স্পনসর? শুনতে অবাক লাগলেও এবারের বাঙালির হাই ভোল্টেজ ফেস্টিভল শারদ উৎসবে স্পনসরশিপ করতে চলেছে কমিউনিস্ট দেশ চিন। জানা গিয়েছে, বিজে ব্লকের দুর্গাপুজোর জন্য চিন নিজের বাণিজ্যিক দুতাবাসের তরফ থেকে এই ফান্ডিং করবে।

বিগত কয়েক বছর ধরেই চিন দূতাবাস কলকাতার সংস্কৃতির সঙ্গে মেলামেশা ও ঘনিষ্ঠতা বাড়ানোর চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। গেল বছরেই কলকাতা পুলিশের সঙ্গে হাত মিলিয়ে দুর্গা পুজোয় বহু পুরস্কার বিতরণ করেছিল তারা। এবার যেন দুই দেশের সেই সংস্কৃতির মেলবন্ধনকেই আরও একধাপ এগিয়ে নিয়ে যেতে এই পদক্ষেপ নিল চিন।

দুর্গাপুজোয় অংশগ্রহণ করে না এমন বাঙালির সংখ্যা নগণ্য বললেই চলে। তাই কলকাতায় চিনা সংস্কৃতির প্রভাব বিস্তার করতে এই উৎসবকেই মুখ্য করেছে ড্রাগনের দেশ। জানা গিয়েছে, কলকাতার থেকে বেশ কিছু শিল্পীকে চিন নিয়ে যাওয়া হবে চিনা কারুকার্যের প্রশিক্ষণ দেওয়ার জন্য। এর মাধ্যমে পুজো প্যান্ডেলেও চিনা শিল্পের ছোঁয়া দেখা যেতে পারে এবারের পুজোয়। চিনা স্পনসর পুজোগুলিতে। কমিউনিস্ট এই দেশের দূতাবাসের জেনারেল মা ঝানুব বলেন, ”কলকাতার দুর্গাপুজোর অনুভূতি ভাষায় প্রকাশ করা সম্ভব না। এই উৎসবে এবার সল্টলেকে আমরা এক টুকরো চিন তৈরি করব। এর জন্য বিশেষ ট্রেনিং দেওয়ারও বন্দোবস্ত করেছি আমরা।”

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here