kolkata news

 

নিজস্ব প্রতিনিধি: ম্যানহোলে নেমে মৃত চার ঠিকা শ্রমিকের পরিবারকে পাঁচ লাখ টাকা করে ক্ষতিপূরণ দেওয়ার কথা ঘোষণা করেছে কলকাতা পুরসভা। একইসঙ্গে এখনও যে ৩ জন শ্রমিক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন, তাদের এক লাখ টাকা করে ক্ষতিপূরণ দেওয়া হবে। পুরসভার ঠিকা শ্রমিক হিসাবে আজ কুঁদঘাটে ম্যানহোলে নেমে কাজ করছিলেন ওই সাত জন। পাতালে কাজ করার সময়ে ঘটে দুর্ঘটনা। জলের তোড়ে চারজনের মৃত্যু হয়। তিন জন অসুস্থ হন। এই ঘটনা কী করে ঘটল, তা জানার জন্য তিন সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গড়েছে পুরসভা।

এদিন দুপুরে কুঁদঘাটে ম্যনহোলে নেমে কাজ করছিলেন সাত জন শ্রমিক। তাদের মধ্যে চারজন শ্রমিক মারা যান। মর্মান্তিক এই ঘটনাটি ঘটেছে ১১৪ নম্বর ওয়ার্ডের কুঁদঘাটে।

​জানা গিয়েছে, আজ সকালে পুরসভার ঠিকা কর্মী ওই ৭ শ্রমিক। এলাকায় একটি পাম্পিং স্টেশনের কাজ চলছিল। সেই পাম্পিং স্টেশনের জন্য তৈরি ম্যানহোল পরিষ্কার করতে নামেন শ্রমিকরা। সাতজন ভেতরে নামলেও বাইরে অপেক্ষায় ছিলেন বেশ কয়েকজন শ্রমিক।

​দীর্ঘক্ষণ পার হয়ে গেলে পাতাল থেকে শ্রমিকরা কোনও সাড়াশব্দ না দেওয়ায় আতঙ্কিত হয়ে পড়েন ওপরে অপেক্ষা করা বাকি সঙ্গীরা। এরপর চিৎকার-চেঁচামেচি শুরু হয়। খবর দেওয়া হয় পুলিশ ও দমকলে।

​দ্রুত চলে আসে দমকল। প্রথম অবস্থায় তাদের উদ্ধারে বেগ পেতে হয়। এরপর খবর দেওয়া হয় ডিজাস্টার ম্যানেজমেন্ট টিমকে। ডুবুরি নামিয়ে ওই সাতজনকে প্রায় অচেতন অবস্থায় উদ্ধার করা হয়। দ্রুত তাঁদের নিয়ে যাওয়া হয় হাসপাতালে। সেখানে চারজনকে মৃত বলে ঘোষণা করেন চিকিৎসকরা। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছন মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাস।

​ম্যানহোলে নেমে কাজ করতে হলে বা ময়লা পরিষ্কার করতে হলে উপযুক্ত সরঞ্জাম থাকা দরকার শ্রমিকদের কাছে। কিন্তু জানা গিয়েছে, এদিন ম্যানহোলে নামা ওই শ্রমিকদের কাছে পর্যাপ্ত সরঞ্জাম ছিল না। ওপর থেকে দড়ি বেয়ে তারা ম্যানহোলে নেমেছিলেন বলে জানা গিয়েছে।  ভেতরে কাজ করার সময় আচমকা জলের স্রোতে ওই শ্রমিকরা তলিয়ে যান। এরপর তাদের উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে চারজনকে মৃত বলে ঘোষণা করেন চিকিৎসকরা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here