ডেস্ক: আমরিকাণ্ডের স্মৃতি উসকে দিয়ে ফের শহরে আতঙ্ক ছড়ায় মেডিক্যাল কলেজ। গত ৩ অক্টোবর সকালে আগুন লাগে কলেজের MCH বিল্ডিংয়ের একটি ওষুধের দোকানে। এই ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের জেরে প্রায় ৮০ শতাংশ ওষুধই নষ্ট হয়ে গেছে বলে জানা গিয়েছিল। এবার এই অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় আগুন লাগার মূল কারণ সামনে আনল ফরেন্সিক দল।

ঘটনাস্থল থেকে সংগ্রহ করা নমুনা পরীক্ষার পর ফরেন্সিক দল জানিয়েছে, দীর্ঘক্ষণ চালু থাকা কম্পিউটার থেকেই এই ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড ঘটে। শর্ট সার্কিট হয়ে প্রথমে কম্পিউটারে আগুন ধরে। এরপর সেই আগুনই দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে ভয়াবহ আকার নেয়। তারা আরও জানিয়েছে, যে ঘরে মূলত আগুন লেগেছিল সেই ঘরের এসি, সুইচ বোর্ড সবই অক্ষত রয়েছে। শুধু পুড়েছে কম্পিউটারের ইউপিএস এবং সিপিইউগুলি।

প্রসঙ্গত, নাগেরবাজার বিস্ফোরণকাণ্ডের পর মেডিক্যাল কলেজে আগুনের ঘটনায় নাশকতার ছায়া দেখছিল পুলিশ। কিন্তু সেই তথ্য মানতে নারাজ ছিল তদন্তকারীদের একাংশই। পরে ফরেন্সিক দলের রিপোর্ট সামনে আসায় আপাতত সেই আতঙ্ক থেকে মুক্তি পাওয়া যাচ্ছে। উল্লেখ্য, মেডিক্যাল কলেজে আগুন লাগার পর প্রায় ২৫০ রোগীকে নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়। সেই হুড়োহুড়ির মাঝে মৃত্যু হয় এক রোগীরও।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here