kolkata bengali news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: গতকাল একটি ভিডিও সোশ্যাল সাইটে ভাইরাল হওয়ার পরেই তীব্র বিতর্কের সৃষ্টি হয়। দেখা যায়, হাতে-মুখে বন্দুক গুঁজে একজন দেদার নাচে মত্ত। তিনি উত্তরাখণ্ডের বিজেপি বিধায়ক প্রণব সিং। যদিও আপাতত তিনি সাসপেন্ডেড। কিন্তু ভিডিও ছড়িয়ে পড়তেই কাঠগড়ায় চলে আসে বিজেপি। দলের তরফে কড়া অবস্থানও নেওয়া হয়। কিন্তু এই বিষয়ে নিজের কোনও দোষ দেখতে পাচ্ছেন না ওই বিধায়ক। তাঁর বক্তব্য, ‘আমি কোনও অপরাধ করিনি।’

সাসপেন্ডড বিধায়ক প্রণব দাবি করেছেন, ‘এটা আমার বিরুদ্ধে কংগ্রেসের একটা ষড়যন্ত্র। আমার নাম খারাপ করার জন্যই এটা করা হয়েছে। আমার হাত যে রিভলবারগুলি ছিল তার লাইসেন্স আছে এবং সেগুলি লোডেড ছিল না। কারও দিকে ওগুলো তাকও করা হয়নি, কাউকে ভয়ও দেখানো হয়নি।’ এই মন্তব্য করে প্রণব প্রশ্ন তুলেছেন, ‘মদ্যপান করা এবং লাইসেন্সড বন্দুক রাখা কি কারও জন্য অপরাধ?’

গতকাল অবশ্য এই ভিডিওর প্রেক্ষিতে নিজেদের যুক্তি দিয়েছিল প্রণব ঘনিষ্ঠরা। জানানো হয়েছিল, কিছুদিন আগেই পায়ের অস্ত্রপচার করে সবেমাত্র বাড়ি ফিরেছেন তিনি। তাই বন্ধুদের নিয়ে একটু পার্টি করছিলেন। দলের তরফে অবশ্য জানানো হয়েছে, আগেই প্রণবকে সাসপেন্ড করা হয়েছিল, এখন তাকে সম্পূর্ণভাবে বহিষ্কার না করার আর কোনও কারণ নেই। সম্প্রতি আকাশ বিজয়বর্গীয়র ঘটনায় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী কড়া অবস্থান নিয়েছেন। তারপরে এই ধরনের ঘটনা একবারেই গ্রাহ্য করছে না বিজেপি শীর্ষ নেতৃত্ব।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here