ডেস্ক: পঞ্জাব ন্যাশনাল ব্যাঙ্ক আর্থিক কেলেঙ্কারি নিয়ে এবার ফের বাকযুদ্ধে জড়িয়ে পড়ল বিজেপি এবং কংগ্রেস। দুই পক্ষ থেকেই একে অপরকে দোষারোপের পালা চলার মধ্যেই ওরিয়েন্টাল ব্যাঙ্ক অফ কমার্সে ৩৯০ কোটির জালিয়াতি প্রকাশ্যে আসায় বিজেপিকে আক্রমণ করার আরও সুযোগ পেয়ে যায় কংগ্রেস। এদিন সাংবাদিক সম্মেলন করে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ‘চৌকিদার’ হিসাবে ভূমিকা নিয়ে তুলে দিলেন কংগ্রেস নেতা কপিল সিব্বল। অন্যদিকে সাংবাদিক বৈঠক ডেকে আর্থিক জালিয়াতির দায় নিজের ঘাড় থেকে ঝেড়ে ফেলে অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি।

”আপনি যদি দেশের চৌকিদার হন, তবে কীভাবে নিরব মোদীকে পালাতে দিলেন?” প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে নিশানায় নিয়ে এই ভাষাতেই কটাক্ষ করেন কপিল সিব্বল। শনিবার কংগ্রেস দফতরে শাসক দলকে নিশানায় নিয়ে সিব্বল আরও বলেন, ”জালিয়াতির তদন্ত খুবই ধীর গতিতে চলছে”। টুজি কেলেঙ্কারির প্রসঙ্গ টেনে কপিল বলেন, এখন থেকে এই ব্যাঙ্ক কেলেঙ্কারিকে আমরা ‘নিমোজি’ নাম দিলাম। প্রধানমন্ত্রীর দেশ চালানোর ক্ষমতা নিয়েই প্রশ্ন তুলে কপিল বলেন, ”দেশ চালানোর কোনও অভিজ্ঞতা নেই নরেন্দ্র মোদীর। দেশের উন্নতি কীভাবে হবে আমি জানি। কিন্তু উনি শুধুই আমাদের নিন্দা করেন। আমাদের ইতিহাস না জেনেই অভিযোগ তোলেন। শুধু কংগ্রেসের সময় নয়, অটলজি প্রধানমন্ত্রী থাকার সময়ও এরম ঘটনা ঘটেনি।”

অন্যদিকে ওরিয়েন্টাল ব্যাঙ্কে ৩৯০ কোটির জালিয়াতি সামনে আসতেই নিজের পিঠ বাঁচাতে নেমে পড়েন অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি। পিএনবি জালিয়াতির জন্য ব্যাঙ্ককর্মীদের দোষারোপ করে জেটলি বলেন, ”একই ব্যাঙ্কের বিভিন্ন শাখায় জালিয়াতি হচ্ছে অথচ কোনও কর্মী কাউকে সতর্ক করলেন না? অডিটরদের চোখেও কোনো অনিয়ম ধরা পড়ল না? এই ধরণের গাফিলতি গোটা দেশের জন্য বিশেষভাবে উদ্বেগজনক।”

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here