‘প্রধান শত্রু’কে হারাতে বাংলায় এবার কি ‘ঘাসফুল’ ধরবে ‘হাত’? বিধানসভা নিয়ে বাড়ছে জল্পনা

0
314
kolkata bengali news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: ২০১৯ লোকসভা নির্বাচনের আগে বাংলায় কংগ্রেস-তৃণমূল জোটের একটা ইঙ্গিত মিলেছিল। কিন্তু শেষপর্যন্ত তা হয়ে ওঠেনি। কিন্তু পরবর্তী বিধানসভায় এই জোট বাস্তব হতে পারে! তৃণমূল-কংগ্রেসের ‘প্রধান শত্রু’ বিজেপিকে আটকানোর জন্যই হাতেহাত রাখতে পারেন সনিয়া-মমতা। না এ কোনও অন্ধকারে ঢিল ছোড়ার মতো ব্যাপার নয়। দুই দলের নেতাদের আচরণেই তার প্রমাণ মিলছে।

এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যম সূত্রে খবর,

গত সপ্তাহে সংসদে শ্রীরামপুরের তৃণমূল সাংসদ কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে প্রায় ৩০ মিনিট কথা বলেন কংগ্রেস সাংসদ রাহুল গান্ধী। এই আলোচনায় দু’জনের কথাতে উঠে আসে বাংলায় তাদের ‘প্রধান শত্রু’ কে। স্বভাবতই বিজেপির বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নিতে বদ্ধপরিকর তারা। শুধু রাহুল-কল্যাণ নন, দীর্ঘক্ষণ কথা বলতে দেখা যায়, অন্য প্রবীণ কংগ্রেস নেতা পি চিদাম্বরম ও তৃণমূল সাংসদ সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়কে।

তাঁদের মধ্যেও যে এই বাংলা নিয়ে কথা হয়েছে তা আলাদা করে বলা অপেক্ষা রাখে না।

গত লোকসভা নির্বাচনে বাংলায় তৃণমূল ৪৩.৩% ভোট পেয়ে জিতেছে ২২টি আসন। অপরদিকে, বিজেপি ৪০% ভোট পেয়ে পেয়েছে ১৮টি আসন। ২০১৪ লোকসভা নির্বাচনের নিরিখে এই ফল দুপক্ষের জন্য এককথায় অবিশ্বাস্য। সেই জায়গা থেকে দাঁড়িয়ে কংগ্রেসের ক্ষমতা হ্রাস পেতে পেতে কার্যত হারিয়ে গিয়েছে। সেই জায়গাতেই ঘুরে দাঁড়াতে চায় রাহুল বাহিনী। সভাপতি পদ নিয়ে বিস্তর গোলমাল চললেও আপাতত অন্তর্বর্তী সভাপতি হয়েছেন সনিয়া। নতুন দিশা পেতে এবার বঙ্গে ঘাসফুলেই ভরসা রাখতে পারে তারা। যদিও এই বিষয় শেষ সিদ্ধান্ত নেবেন সনিয়া গান্ধী ও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ই।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here