news bengali

মহানগর ওয়েবডেস্ক: লক ডাউনের ফলে মুখ থুবড়ে পড়েছে অর্থনীতি। তাই অনেক রাজ্যই অন্তত মদের দোকান খুলতে দেওয়ার দাবি জানিয়েছে কেন্দ্রের কাছে। আবগারি দফতরের সুবাদে যাতে ঘুরে দাঁড়াতে পারে অর্থনীতি তারই প্রচেষ্টা। এসবের মাঝেই রাজস্থানের এক কংগ্রেস বিধায়কের দাবি মদ্যপান করলে গলার মধ্যেই করোনা ভাইরাস মারা যায়। অন্তত সেই কারণেই খোলা হোক মদের দোকান।

কংগ্রেস ওই নেতার নাম ভরত সিং। তিনি কোটার সংগদের কংগ্রেস বিধায়ক। তাঁর যুক্তি, যদি অ্যালকোহলযুক্ত হ্যান্ড স্যানিটাইজার দিয়ে হাত ধুলে করোনা হাতে মরে যায়, তাহলে মদ্যপান করলে গলাতে করোনা বাঁচবে কী করে? পাশাপাশি তিনি এও জানান, ভালো মদ না পেয়ে অনেকে বিষাক্ত মদ খাচ্ছেন।

কেন্দ্রের মতো রাজস্থান সরকারও আপাতত মদের দোকান খোলার ব্যাপারে খুব একটা রাজি নয়। কিন্তু নিজের যুক্তি দেখিয়ে ইতিমধ্যেই রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী অশোক গেহলটকে চিঠি লিখে ফেলেছেন ওই কংগ্রেস বিধায়ক। তিনি চিঠিতে জানান, লক ডাউনে মদের দোকান বন্ধ থাকায় মদের কালোবাজারি বেড়েছে। অনেকে অবৈজ্ঞানিক উপায়ে মদ বানিয়ে বিক্রি করছেন যা স্বাস্থ্যের পক্ষে ক্ষতিকর। এছাড়া মদের দোকান খুললে রাজ্যের আয়ও কিছুটা হবে।

ভরত সিং জানান, ‘২০২০-২১ অর্থবর্ষে রাজস্থান সরকারের লক্ষ্য ছিল ওয়াই বিক্রি থেকে ১২,৫০০ কোটি টাকা আয় করা। কিন্তু লক ডাউনের কারণে সেটা সম্ভব হবে না। সেই কারণে ক্ষতি পূরণ করতে রাজ্য সরকার ওয়াইনে এক্সাইজ ডিউটি অনেকটা বাড়িয়ে দিয়েছে।’ ভরতের মতে এর থেকে ভাল রাজ্য সরকার যদি মদের দোকানগুলো খুলে দেয়, তাহলে রাজ্যের আয় অনেকটাই বেড়ে যাবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here