national news on pak

Highlights

  • লাহোরে বিয়ের অনুষ্ঠানে গেলেন শত্রুঘ্ন সিনহা
  • তাঁর পাকিস্তান সফর নিয়ে বিতর্ক
  • পাক রাষ্ট্রপতির সঙ্গে দেখা করেন তিনি

মহানগর ওয়েবডেস্ক: বারবার বিজেপি-তে থেকেই দলের বিরুদ্ধে বিরূপ মন্তব্য করে বিতর্কে জড়িয়েছেন৷ তারপর দল ছেড়ে কংগ্রেসে যোগ দিয়েছেন৷ এবার আবার পাকিস্তানে গিয়ে বিতর্ক তৈরি করলেন কংগ্রেস নেতা শত্রুঘ্ন সিনহা৷ সাক্ষাৎ করলেন পাকিস্তানের রাষ্ট্রপতি আরিফ আলভির সঙ্গে। দুই নেতা আন্তঃসীমান্ত শান্তি বজায় রাখা কতটা জরুরি সেবিষয়ে আলোচনা করেন বলে পাকিস্তান টুইট করে জানিয়েছে। একটি বিয়ের অনুষ্ঠানে যোগ দিতে পাকিস্তানে গিয়েছেন অভিনেতা থেকে রাজনীতিবিদ হয়ে ওঠা শত্রুঘ্ন। তিনি রাষ্ট্রপতি ভবনে পাকিস্তানের রাষ্ট্রপতির সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন। বেশ কয়েকটি বিষয়ে তাঁদের মধ্যে আলোচনা হয়। এর অন্যতম বিষয় ছিল কাশ্মীর।

রাষ্ট্রপতির দফতরের এক বিবৃতি থেকে একথা জানিয়েছে সংবাদ সংস্থা পিটিআই। সেই প্রতিবেদন থেকে জানা যাচ্ছে, দু’জনেই একমত হন যে উপমহাদেশে শান্তি ফেরাতে আলোচনার বিশেষ প্রয়োজন রয়েছে। পরে টুইট করে শত্রুঘ্ন সিনহা জানান, বহু সামাজিক ও সাংস্কৃতিক বিষয়ে আমরা কথা বলেছি। কিন্তু রাজনীতি নিয়ে কোনও আলোচনা হয়নি। আমার বন্ধু, শুভাকাঙ্ক্ষী, সমর্থকরা এবং অবশ্যই সংবাদমাধ্যম বুঝবে, কেউ সরকার প্রেরিত না হলে বিদেশের মাটিতে বসে দেশের নীতি বা রাজনীতি নিয়ে কথা বলতে পারে না।

পাকিস্তানের রাষ্ট্রপতি আরিফ আলভি টুইট করে জানান, কাশ্মীরের নিষেধাজ্ঞা সম্পর্কে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন শত্রুঘ্ন। প্রসঙ্গত, গত আগস্টে সংবিধানের ৩৭০ ধারা বাতিল করে জম্মু ও কাশ্মীরের ‘স্পেশাল স্ট্যাটাস’ তুলে দেওয়া হয়৷ সেইসঙ্গে কেন্দ্র জম্মু কাশ্মীর ও লাদাখকে দু’টি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে বিভক্ত করে৷ সেই সময় থেকে নিষেধাজ্ঞা জারি রয়েছে কাশ্মীরে। কেবল নিষেধাজ্ঞা জারি করাই নয়, আটক করা হয়েছে বহু রাজনীতিবিদকেও। তাঁদের অন্যতম রাজ্যের প্রাক্তন তিন মুথ্যমন্ত্রী। সরকার জানিয়েছে, এই নিষেধাজ্ঞা ধাপে ধাপে তুলে নেওয়া হবে।

প্রাক্তন সাংসদ ও কেন্দ্রীয় মন্ত্রী শত্রুঘ্ন সিন‌হা লাহোরে একটি বিয়ের অনুষ্ঠানে যোগ দিতে গিয়েছেন। পাক ব্যবসায়ী মিঁয়া আসাদ খানের আমন্ত্রণে সেখানে যান তিনি। রাষ্ট্রপতির সঙ্গে দেখা করার আগেও টুইট করে বর্ষীয়ান অভিনেতা জানিয়েছিলেন, এই সাক্ষাৎ একান্তই ব্যক্তিগত।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here