kolkata bengali news

ডেস্ক: ‘মোদীজী আপনি যতই মিথ্যা বলুন, সত্য একদিন প্রকাশ্যে আসবেই। কোনও গোপনীয়তা আইন দিয়ে এখন কিছু চেপে দিতে পারবেন না। তিনি আরও বলেন, ভয় পাবেন না মোদীজী, আপনি চান বা না চান, রাফাল নিয়ে এখন তদন্ত চলবে।’ রাফাল ইস্যুতে নরেন্দ্র মোদীকে এভাবেই আক্রমণ করলেন কংগ্রেসের মুখপাত্র রনদীপ সুরজেওয়ালা। পাশাপাশি, রাফাল দুর্নীতি নিয়ে সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশকে স্বাগত জানাল কংগ্রেস। উল্লেখ্য, বুধবার এই মামলার ফের শুনানিতে সীলমোহর দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট। সঙ্গে সঙ্গে কংগ্রেস একে ভারতের জয় বলেও উল্লেখ করেছে। এদিন রাফাল দুর্নীতি কান্ডে ফাঁস হওয়া গোপন নথিকে শুনানিযোগ্য বলেছে আদালত। অন্যদিকে, দ্য হিন্দু সংবাদপত্রে গোপন নথির খবর প্রকাশ নিয়ে কেন্দ্রের আপত্তির আবেদন খারিজ করে দিয়েছে শীর্ষ আদালত।

সুপ্রিম কোর্টের এই নির্দেশের পরই কংগ্রেস বলেছে, রাফাল দুর্নীতি মামলায় একের পর এক হোচট খাচ্ছে সরকার। ফলে এই অবৈধ লেনদেনের তদন্ত হবে। দলীয় ট্যুইটারে কংগ্রেস লিখেছে, রাফাল মামলা পর্যালোচনা নিয়ে সুপ্রিম কোর্টের রায়কে স্বাগত। সত্যমেব জয়তে! প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে টার্গেট করে এদিন ট্যুইট করেছেন কংগ্রেসের মুখপাত্র রনদীপ সুরজেওয়ালা। তিনি বলেন, রাফাল দুর্নীতি মামলায় একের পর এক ধাক্কা খাচ্ছে সরকার। তাঁর দুর্নীতি ফাঁস করে দেওয়ার কারণে এক সাংবাদিকের বিরুদ্ধে সরকারি গোপনীয়তা আইনে মামলার হুমকি দিয়েছিলেন মোদী। সুরজেওয়ালা আরও বলেন, ‘মোদীজী আপনি যতই লাগাতার মিথ্যা বলুন, সত্য একদিন প্রকাশ্যে আসবেই। এখন কোনও গোপনীয়তা আইন দিয়ে কিছু চেপে দিতে পারবেন না। তিনি আরও বলেন, ভয় পাবেন না মোদীজী, আপনি চান বা না চান, এখন তদন্ত চলবে।’

কেন্দ্রের দাবি ছিল, ওই নথি জাতীয় নিরাপত্তার ক্ষেত্রে অতি স্পর্শকাতর বিষয়। ফলে ভারতীয় দন্ডবিধি অনুযায়ী অনুমোদনবিহীন ফটোকপি প্রকাশ করা অপরাধ এবং তা একপ্রকার চুরিও। আদালতের তত্ত্বাবধানে রাফাল দুর্নীতি নিয়ে তদন্তের একটি আবেদন গত বছর ১৪ ডিসেম্বর খারিজ করে দিয়েছিল সুপ্রিম কোর্ট। কারণ, ফ্র্যান্সের এই জেট বিমান ক্রয়ের বরাত দেওয়ার প্রক্রিয়ায় কাউকে বাণিজ্যিক সুবিধা দেওয়ার মতো তথ্য খু্ঁজে পায়নি আদালত। এরপর এই রায় পুনর্বিবেচনার জন্য আবেদন জানান অরুণ শৌরি, যশবন্ত সিনহা, প্রশান্ত ভূষণরা। তাঁরা বলেন, সরকারের ভুল দাবিকে বিশ্বাস করেছে আদালত। এনিয়ে তাঁরা মুখবন্ধ নথিও পেশ করেন আদালতে। এদিন রাফাল দুর্নীতির ফাঁস হওয়া গোপন নথির ভিত্তিতে এই মামলাকে শুনানিযোগ্য বলে জানায় আদালত।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here