মহানগর ওয়েবডেস্ক: গত ফেব্রুয়ারি মাসে রাজধানী দিল্লির বুকে ঘটে যাওয়া দাঙ্গার ঘটনায় চার্জশিটে এবার বরিষ্ঠ কংগ্রেস নেতা তথা প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী সালমান খুরশিদের নাম উঠে এল। সূত্র মারফত জানা গিয়েছে, উস্কানিমূলক বক্তব্য রাখার অভিযোগে দিল্লির দাঙ্গার ঘটনায় কেন্দ্রীয় সরকার অধীনস্থ দিল্লি পুলিশ যে চার্জশিট দিয়েছে, তাতে সালমান খুরশিদের নাম রয়েছে।

১৭০০০ পাতার এই চার্জশিটে প্রত্যক্ষদর্শীদের বয়ান অনুযায়ী লেখা হয়েছে, ওমর খালিদ সালমান খুরশিদ এবং নাদিম খান, এরা উস্কানিমূলক বক্তব্য দিয়ে মানুষকে একত্রিত করত। যদিও কী ধরনের উস্কানিমূলক বক্তব্য তারা দিয়েছে সেই বিষয়ে স্পষ্ট করে দিল্লি পুলিশ কিছুই লেখেনি চার্জশিটে। যে প্রত্যক্ষদর্শীর বয়ান অনুযায়ী চার্জশিটে এই কথাগুলি লেখা হয়েছে, তার পরিচিতি প্রকাশ্যে আনেনি দিল্লি পুলিশ। তবে তাদের দাবি, যে কয়েকজন মিলে এই দাঙ্গার পরিকল্পনা করেছিল, তাদের মধ্যেই একজন ওই ব্যক্তি। প্রত্যক্ষদর্শীর বয়ান একজন বিচারপতি সামনেই রেকর্ড করা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। পুলিশ রেকর্ডে অভিযুক্ত আরও এক ব্যক্তি একই রকম অভিযোগ তুলেছে সালমান খুরশিদের বিরুদ্ধে।

এই অভিযোগের প্রেক্ষিতে কংগ্রেস নেতা সালমান খুরশিদ বলেছেন, ‘কেউ যদি আবর্জনা সংগ্রহ করতে চায় তবে অনেক নোংরা উঠে আসবে। ব্যক্তি বিশেষে করা কোনও মন্তব্যকে সমর্থনের জন্য যেকোনো নোংরামির আশ্রয় নেওয়া যেতে পারে। তবে আমি জানতে চাই, আমি কোন উস্কানিমূলক মন্তব্য করেছি। দুঃখের বিষয় হচ্ছে, যারা এই আবর্জনা সংগ্রহ করছেন তারা নিজের কাজটা ঠিকমতো করতে পারছেন না। আবর্জনা সংগ্রহ করে আপনি কখনও আবর্জনার গুণগত মান নিয়ে প্রশ্ন তুলতে পারেন না। যে ব্যক্তি আমার বিরুদ্ধে উসকানিমূলক বক্তব্যের অভিযোগ তুলেছে, সে কি মিথ্যে কথা বলছে না? যদি আমি কোনও উস্কানিমূলক বক্তব্য দিতাম তবে পুলিশ পদক্ষেপ নিত। পুলিশ যখন পদক্ষেপ নেয়নি তাহলে এই বয়ানের মানে কী।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here