india news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: আতঙ্ক শেষের কোনও হদিশ মাত্র নেই। বেড়েই চলছে করোনাতঙ্ক। ২৪ ঘণ্টা আগেও যে সংখ্যাটা ১৫০ ছিল, সেটাই বৃহস্পতিবার সকালে বেড়ে হল ১৬৯। এবার চণ্ডীগড়ে এক মহিলার দেহে মিলল করোনা ভাইরাস। সূত্রের খবর, ওই মহিলা নাকি কিছুদিন আগেই ইংল্যান্ড থেকে ফিরেছিলেন।

করোনাভাইরাস প্রতিরোধে ইতিমধ্যেই বিভিন্ন পদক্ষেপ নিয়েছে গোটা বিশ্বের বিভিন্ন দেশ। ভারতও যথেষ্ট পরিমাণে পদক্ষেপ নিচ্ছে কিন্তু সাধারণ মানুষের চিন্তা কমছে না কিছুতেই। অন্যদিকে, একাধিক বড় বড় কোম্পানি তাদের কাজও আপাতত বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। গুরুত্বপূর্ণ ওষুধ ছাড়া অ্যামাজন ডেলিভারি বন্ধ রেখেছে। গুগল সহ একাধিক আইটি সংস্থা তাদের কর্মীদের বাড়ি থেকে কাজ করার নির্দেশ দিয়েছে। এদিকে, গোটা ভারতেই প্রায় ৩১ মার্চ পর্যন্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছে বিভিন্ন রাজ্য সরকার।

এত কিছু সত্ত্বেও করোনা সংক্রমণ সেই ভাবে ঠেকানো যাচ্ছে না। প্রতিনিয়তই বেড়ে চলেছে নতুন করে আক্রান্তের সংখ্যা। ইতিমধ্যেই গোটা বিশ্বে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ছুঁয়েছে ২,১৯,২৪৩। এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গিয়েছেন ৮,৯৬৮ জন। পশ্চিমবঙ্গেও একজনের শরীরে করোনা ভাইরাস মিলেছে। ১৮ বছরের এক তরুণ সম্প্রতি ইংল্যান্ড থেকে ফিরেছিলেন। গত পরশু তাঁর করোনায় আক্রান্ত হওয়ার খবর সামনে এসেছিল।

অন্যদিকে, এহেন পরিস্থিতিতে আজ, ১৯ মার্চ সন্ধ্যা ৮টায় জাতির উদ্দেশে ভাষণ দেবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। গতকালই করোনা মোকাবিলা করতে একটি উচ্চ পর্যায়ের বৈঠক করেন তিনি। করোনা মোকাবিলায় ভারতীয় প্রশাসনের আর কী কী করণীয়, সেটাই ঠিক হয় ওই বৈঠকে।

উল্লেখ্য, কয়েকদিন আগেই সচেতনতা বাড়াতে এবং অত্যন্ত সংক্রামক করোনাভাইরাসের প্রকোপ কমাতে সাধারণ মানুষের থেকে বিভিন্ন পরামর্শ চেয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। এই নিয়ে ইতিমধ্যেই এক নতুন সোশ্যাল মিডিয়া প্রকল্পের সূচনা করেছেন তিনি। সেই প্রকল্পের মাধ্যমে দেশের জনসাধারণের কাছ থেকে করোনার সংক্রমণ কমাতে প্রযুক্তি নির্ভর অভিনব আইডিয়া চেয়েছেন নরেন্দ্র মোদী।

করোনাভাইরাস রুখতে ইতিমধ্যেই বিভিন্ন পদক্ষেপ নিয়েছে সব রাজ্যের সরকার। পরিস্কার, পরিচ্ছন্নতার পাশাপাশি জোর দেওয়া হয়েছে সোশ্যাল ডিসট্যান্সিংয়ের ওপর, অর্থাৎ কাছাকাছি বেশি না থাকার ওপর। এর বাইরেও প্রচুর পদক্ষেপ নেওয়ার আছে। সেই প্রেক্ষিতেই এবার জনসাধারণের থেকে সাহায্য চেয়েছিলেন নমো। নয়া প্রকল্পের ভিত্তিতে সাধারণের কাছে তাঁর আবেদন, স্বাস্থ্যবান বিশ্বের জন্য এই উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। প্রচুর মানুষ করোনাভাইরাস আটকাতে প্রযুক্তি নির্ভর বিভিন্ন পরামর্শ দিচ্ছেন। তিনি আবেদন জানিয়েছেন যাতে সেই পরামর্শ মানুষ সরকারি পোর্টাল [email protected]এ দেয়।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here