মহানগর ওয়েবডেস্ক: দেশজুড়ে ক্রমাগতভাবে বেড়ে চলেছে করোনাভাইরাসের দাপট। সেই আবহেই শনিবার এক প্রশ্নের জবাবে সংসদে সরকারের তরফে জানিয়ে দেওয়া হল বয়স্কদের তুলনায় অল্পবয়সী বাচ্চারা কম সংক্রামিত হয় মারণ এই ভাইরাসে। এদিন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী প্রতিমন্ত্রী অশ্বিনী কুমার চৌবে জানান, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার দাবি অনুযায়ী অল্প বয়সীরা করোনা ছড়ানোর ক্ষেত্রে কতটা সক্রিয় এখনো পুরোপুরি অধ্যায়ন করা সম্ভব হয়নি। হবে বয়স্কদের তুলনায় সাধারণভাবে অল্প বয়সীদের ক্ষেত্রে শরীরে সংক্রমনের পরিমাণ অনেক কম।

সম্প্রতিক সংসদের সরকারকে প্রশ্ন করা হয়, বৈজ্ঞানিক পরীক্ষার মাধ্যমে এটা কি জানা সম্ভব হয়েছে যে এই ভাইরাস বাচ্চাদের শরীরে কম প্রভাব ফেলে। যদি হ্যাঁ হয় তবে তার বিবরণ দেওয়া হোক। এর প্রেক্ষিতে সংসদে বিবৃতি দেন স্বাস্থ্যমন্ত্রীর প্রতিমন্ত্রী। তিনি বলেন শূন্য থেকে ১৭ বছর বয়সী শিশুদের ক্ষেত্রে করোনা আক্রান্ত হওয়ার ঘটনা যথেষ্ট কম দেখা গিয়েছে ভারতে। রিপোর্ট অনুযায়ী সংখ্যাটা মাত্র ৮ শতাংশ। সাধারনত এই ভাইরাসে আক্রান্ত হলেও অসুস্থ হওয়ার সম্ভাবনা যথেষ্ট কম বাচ্চাদের। খুব কম ক্ষেত্রেই এরা গুরুতর অসুস্থ হয়েছে এমনটা দেখা গিয়েছে।

নিশ্চিত হবে সরকারের এই বিবৃতি আশাপ্রদ দেশের প্রতিটি বাবা-মায়ের কাছে। কারণ অনুমান করা হয় বয়স্কদের তুলনায় শিশু ও বাচ্চাদের শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা যথেষ্ট কম। তবে সরকারের এই বিবৃতিতে শঙ্কা প্রকাশ করেছেন অনেকেই। উল্লেখ্য, করোনা পরিস্থিতি গুরুতর হওয়ার আগেই দেশের সমস্ত স্কুল-কলেজ বন্ধ করে দিয়েছে সরকার। বর্তমানে তা বন্ধ রয়েছে। যদিও ভারতে যে তথ্য প্রকাশ করা হয়েছে বিশ্বের প্রেক্ষিতে সে তথ্য কিন্তু আশার প্রদক নয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here