modi
দ্বিতীয় পর্যায়ে ভ্যাক্সিন নেবেন প্রধানমন্ত্রী।

মহানগর ডেস্ক: দেশে করোনা ভাইরাস মোকাবিলায় ইতিমধ্যেই শুরু হয়ে গিয়েছে ‘গণটিকাকরণ’ অভিযান।

modi
দ্বিতীয় পর্যায়ে ভ্যাক্সিন নেবেন প্রধানমন্ত্রী।

দেশে এই কর্মকাণ্ড শুরু হলেও টিকাকরণের শুরুতেই বড়সড় ধাক্কা খেয়েছিল কেন্দ্র। টিকাকরণের প্রথম পর্যায়ে দেশের স্বাস্থ্যকর্মী,সাফাইকর্মী এবং পুলিশকর্মীদের টিকা দেওয়া শুরু হলেও  অনেকেই এই টিকা নিতে অস্বীকার করেন। এই বিষয়ে কেন্দ্রের তরফ থেকে ‘আক্ষেপের’ সুরও শোনা যায়। সাধারণ মানুষদের মন থেকে ভয় দূর করতে রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বদের এই প্রতিষেধক নেওয়া উচিত বলে মত জানিয়েছিলেন বিভিন্ন চিকিৎসকেরা। সেই কথা মাথায় রেখেই ভ্যাক্সিনের দ্বিতীয় পর্যায়ে এবার প্রতিষেধক নেওয়ার কথা জানালেন প্রধানমন্ত্রী।

গত ২৪ নভেম্বর মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে বৈঠকে মোদি জানিয়েছিলেন, কী ভাবে কোন কোন পর্যায়ে কারা ভ্যাকসিন গ্রহণ করবেন। সেই অনুযায়ী, দ্বিতীয় পর্যায়ে প্রধানমন্ত্রী ছাড়াও বিভিন্ন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীরাও ভ্যাকসিন নেবেন।

এরপর, পঞ্চাশোর্ধ্ব রাজনীতিবিদদের টিকাকরণ পরের (তৃতীয়) পর্যায়ে হবে। চতুর্থ পর্যায়ে টিকাকরণ হবে তাঁদের, যাঁদের বয়স ৫০-এর নীচে, কিন্তু শরীরে কো-মর্বিডিটি রয়েছে।

দেশে এখনও পর্যন্ত করোনায় মৃত্যু হয়েছে ১ লক্ষ ৫২ হাজার ৮৬৯ জনের। আক্রান্তের সংখ্যা ১ কোটি ৬ লক্ষ ১০ হাজার ৮৮৩। এরই মধ্যে করোনাকে জয় করে সুস্থ হয়েছেন ১ কোটি ২ লক্ষ ৬৫ হাজার ৭০৬ জন।

দেশে করোনায় দৈনিক মৃত্যু কমেছে। তবে দৈনিক সংক্রমণের সংখ্যা বেড়েছে।  সেইসঙ্গে বেড়েছে দৈনিক সুস্থতার সংখ্যাও।

গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু হয়েছে ১৫১ জনের। গতকাল দৈনিক মৃত্যুর সংখ্যা ছিল ১৬২। একদিনে আক্রান্তের সংখ্যা ১৫ হাজার ২২৩। গতকাল দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা ছিল ১৩ হাজার ৮২৩।

গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থতার সংখ্যা ১৯ হাজার ৯৬৫। গতকাল একদিনে সুস্থতার সংখ্যা ছিল ১৬ হাজার ৯৮৮। দেশে মৃত্যুর হার ১ দশমিক ৪৪ শতাংশ। সুস্থতার হার ৯৬ দশমিক ৭৫ শতাংশ।

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, দেশে দৈনিক মৃত্যুতে আজ ষষ্ঠ স্থানে বাংলা।  রাজ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় মৃত্যু হয়েছে ৬ জনের।  প্রথম স্থানে রয়েছে মহারাষ্ট্র। ওই রাজ্যে একদিনে মৃত্যু হয়েছে ৫৯ জনের।

অন্যদিকে, বিশ্বে করোনায় বাড়ল দৈনিক মৃত্যু। বেড়েছে দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যাও। তবে এর পাশাপাশি দৈনিক সুস্থতার সংখ্যাও বেড়েছে।

করোনায় এখনও পর্যন্ত বিশ্বে মৃত্যু হয়েছে ২০ লক্ষ ৭১ হাজার ৭৪২ জনের। আক্রান্তের সংখ্যা ৯ কোটি ৬৭ লক্ষ ৮২ হাজার ৭৩৩। এরই মধ্যে করোনাকে জয় করে সুস্থ হয়েছেন ৫ কোটি ৩৩ লক্ষ ২ হাজার ২১২ জন।

বিশ্বে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় মৃত্যু হয়েছে ১৭ হাজার ৫২৪ জনের। একদিনে আক্রান্তের সংখ্যা ৬ লক্ষ ৮৫ হাজার ৬৩২। গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থতার সংখ্যা ৩ লক্ষ ৭৮ হাজার ৬৬৯।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here