international news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: হাতেগোনা কয়েকটি দেশছাড়া করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়েছে গোটা বিশ্বে। ইতিমধ্যে পৃথিবীজুড়ে ভাইরাসের কারণে মৃত্যু হয়েছে প্রায় ২১ হাজার। আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় ৪ লক্ষ। এই ভাইরাসকে কি করে আটকানো যাবে তা নিয়ে গবেষণা চালাচ্ছেন বিজ্ঞানীরা। এখনো পর্যন্ত কোন ভ্যাকসিন বা প্রতিষেধক আবিষ্কার না হওয়ায় আশঙ্কা আরও বাড়ছে। এরইমধ্যে উদ্বেগজনক তথ্য দিলেন মার্কিন এক বিজ্ঞানী। তাঁর দাবি, এবার থেকে প্রতিবছর আসতে পারে নোভেল করোনাভাইরাস।

ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অফ হেলথ-এর এক গবেষক এন্টনি ফৌচির দাবি, পরিস্থিতি এখন এমন হয়েছে যে, এই ভাইরাস চক্রাকারে ঘুরতে পারে বছর বছর। অর্থাৎ সিজেনাল যে ভাইরাস গুলো দ্বারা আমরা আক্রান্ত হই, যেমন সাধারণ ফ্লু, তেমনি এই ভাইরাস ও সিজনাল হতে পারে। এই মন্তব্য করেই গবেষক স্পষ্ট করেছেন, এখন আমরা এই ভাইরাস কে থামিয়ে দিতে পারব, কিন্তু আমাদের তৈরি থাকতে হবে পরবর্তী সাইকেলের জন্য।

উল্লেখ্য, গোটা বিশ্বে করোনার জেরে মৃত্যুর সংখ্যা ২১ হাজার ছাড়িয়ে গিয়েছে। আক্রান্তের সংখ্যা এই প্রতিবেদন প্রকাশের মুহূর্তে ৪ লক্ষ ৭১ হাজার ৪১৭ জন আক্রান্ত মারণ এই ভাইরাসে। নোভেল করোনার সংক্রমণের জেরে প্রায় সাড়ে তিনশো কোটি মানুষ বা অর্ধেক পৃথিবীই লক ডাউনের আওতায়। অন্যদিকে, ইতালির পর স্পেনেও মৃত্যুমিছিল চিনকে ছাপিয়ে গিয়েছে। এই প্রসঙ্গে রাষ্ট্রসংঘের জেনারেল সেক্রেটারি আন্তনিও গুতেরেস বলেন, ‘কোভিড-১৯ সমগ্র মানবতার কাছেই একটা ভয়ের বিষয়। ফলে সব মানুষকে এক হয়ে লড়তে হবে। কোনও একটি দেশ এটা রোখার জন্য ব্যবস্থা নিলে কোনও লাভ হবে না। এখন সবাইকে এক হয়ে কাজ করতে হবে ও পারস্পরিক ভ্রাতৃত্ববোধ বজায় রাখতে হবে।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here