kolkata bengali news

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা:দুদিন বাড়িতেই পড়ে রইল করোনা আক্রান্তের দেহ। পুরসভাও স্বাস্থ্য ভবনে যোগাযোগ করেও কোনো রকম সুরাহা মিলেনি। এমনই অভিযোগ মৃতের পরিবারের। তবে সহযোগিতা করেছে আমহার্স স্ট্রিট থানার পুলিশ।

বেশ কিছুদিন ধরেই জ্বর সর্দি কাশির মতো উপসর্গ ছিল বছর ৭১ এর আমহার্স স্ট্রিটের বাসিন্দা মোহন মল্লিকের। সোমবার তার অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ার পর স্থানীয় ডাক্তারকে ডাকেন তার পরিবারের লোকজন। ডাক্তার এসে মন বাবুকে পরীক্ষা করে জানান তিনি মৃত। এরপরে মোহন বাবু করনের উপসর্গ ছিল এই কথা জানতে পেরে একবার করো না পরীক্ষা করার পরামর্শ দেন ওই ডাক্তার। মৃতের পরিবার ডাক্তারের পরামর্শ মতো বেসরকারি ল্যাবরেটরীতে খবর দেন। এখানে স্বাস্থ্যকর্মীরা এসে ওই ব্যক্তির নমুনা সংগ্রহ করে নিয়ে যায়। এদিকে সোমবার সারা দিন বাড়িতেই পড়ে থাকে মৃতদেহ।

এর মধ্যে মঙ্গলবার সকালে পুরসভা ও স্বাস্থ্য ভবনে যোগাযোগ করেও কোনো লাভ হয়নি এমনই অভিযোগ করেছেন পরিবারের লোক। এদিকে দেহ পচন ধরতে শুরু করলে পিস হেভেনে যোগাযোগ করা হলে করনা সন্দেহভাজন শুনে তারা দেহ রাখতে নারাজ তা জানিয়ে দেয়। এদিকে মঙ্গলবার রাতেই ওই ল্যাবরটরি থেকে রিপোর্ট আসে মোহন বাবু করোনা পজেটিভ ছিলেন। এরপরেই আমহার্স স্ট্রিট থানায় যোগাযোগ করা হলে পুলিশ জানায় রাতে কিছু করা যাবে না যা করার আজ অর্থাৎ বুধবার সকালে করবে তারা।

এদিকে বুধবার দুপুর গড়িয়ে গেলেও দেহ সৎকার এর বিষয় কিছুই জানায়নি প্রশাসন ওই পরিবারকে। তবে তাদের আশা আজ বিকেলেই হয়তো ওই ব্যক্তির দেহ দাহ করা সম্ভব হবে। আমহার্স স্ট্রিটের মল্লিক পরিবার ও সংলগ্ন পাড়াকে এখন শোকের থেকেও আতঙ্কের ছায়া গ্রাস করেছে বেশি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here