kolkata news

 

নিজস্ব প্রতিনিধি, হাওড়া: আমফানে ক্ষতিগ্রস্তদের তালিকায় ভুয়ো নাম নিয়ে এই মুহূর্তে সরগরম বাংলার রাজনীতি। অনেক ক্ষেত্রেই আমফানের ক্ষতিপূরণ তালিকায় দুর্নীতি ও স্বজনপোষণেরও অভিযোগ উঠেছে। শুধু তাই নয়, তালিকায় এমন মানুষের নাম রয়েছে যারা বিত্তশালী, এমনকী কোনও ভাবেই তাঁরা আমফানে ক্ষতিগ্রস্ত হননি। হাওড়া জেলাতেও সাঁকরাইল, দ্যুইল্যা, পাঁচলায় এমন অভিযোগ উঠেছে। গত শনিবার এক সাংবাদিক বৈঠকে এমন অভিযোগের বিষয়ে রাজ্যের সমবায় মন্ত্রী অরূপ রায় জানিয়েছেন, এর বিরুদ্ধে দল ব্যবস্থা নিচ্ছে। যাদের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ রয়েছে তা খতিয়ে দেখে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। অনুসন্ধান করে যারা এই দুর্নীতির সঙ্গে যুক্ত তাদের বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

মঙ্গলবার আবার সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে অরূপ রায় জানান, দলের কাছে অনেকগুলো অভিযোগ জমা পড়েছিল। সঙ্গে সঙ্গেই দল সেগুলি আমাদের কাছে পাঠিয়েছিল তাদের শো-কজ করার জন্য। ইতিমধ্যেই সেই শো-কজ চিঠি তাদের কাছে পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে। সাঁকরাইল পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি, মাকড়দহ ১ নং গ্রাম পঞ্চায়েত প্রধান, উত্তর ঝাঁপড়দহ ১ নং গ্রাম পঞ্চায়েত প্রধান সহ পাঁচজনকে শো-কজ করা হয়েছে।

মন্ত্রী আরূপ রায় বলেন, তৃণমূল কংগ্রেস বা মা মাটি মানুষের সরকার কোনও ভাবেই দুর্নীতিকে প্রশ্রয় দেয় না। প্রশ্র‍য় দেবে না। যারা এমন কাজ করেছে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। যারা আমফানে প্রকৃত ক্ষতিগ্রস্ত তারা যাতে ক্ষতিপূরণ পায় তার জন্য জেলা প্রশাসন এবং সরকার সচেতন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here