Home Latest News অগাস্তা দুর্নীতি কাণ্ডের অন্যতম অপরাধীকে ফিরিয়ে আনার নির্দেশ জারি দুবাই আদালতের

অগাস্তা দুর্নীতি কাণ্ডের অন্যতম অপরাধীকে ফিরিয়ে আনার নির্দেশ জারি দুবাই আদালতের

0
অগাস্তা দুর্নীতি কাণ্ডের অন্যতম অপরাধীকে ফিরিয়ে আনার নির্দেশ জারি দুবাই আদালতের
Parul

ডেস্ক: অগাস্তাওয়েস্টল্যান্ড চপার দুর্নীতি কাণ্ডের অন্যতম অভিযুক্ত ক্রিস্টান মাইকেলকে প্রত্যার্পণের নির্দেশ দিয়েছে দুবাইয়ের আদালত। আগের বছরই সংযুক্ত আরব আমিরশাহী থেকে গ্রেফতার হন মাইকেল। কারণ ভিভিআইপি চপার চুক্তিতে ঘুষ দেওয়া নেওয়ার ব্যাপারে প্রত্যক্ষভাবে যুক্ত থাকার জন্য এই মুহুর্তে ভারতের কাছে অপরাধী এই ক্রিস্টান মাইকেল। ২০০৭ সালে ১২ টি বিলাসবহুল হেলিকপ্টার কেনার চুক্তি হয়েছিল ভারত সরকারের। রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী এবং দেশের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রীদের জন্য এই হেলিকপ্টার কেনা হবে ঠিক করা হয়েছিল। কিন্তু এই চুক্তিতে দুর্নীতি হয়েছে এমন অভিযোগ উঠেছিল বহুদিন ধরেই। যার কারণে তুমুল বিতর্কের সৃষ্টি হয়েছিল। ফলে ২০১৪ সালে তাকে বাতিল করে দেওয়া হয়।

হেলিকপ্টার সরবরাহকারী অগস্তাওয়েস্টল্যান্ড-এর ধারক সংস্থা ফিনমেক্কানিকা এই চুক্তির জন্য ইতালির এক সংস্থাকে ঘুষ দিয়েছে বলে অভিযোগ ওঠে। আর সেই ঘুষের সঙ্গে তত্কালীন ভারত সরকারের শীর্ষ ব্যক্তিদের যোগসাজশের কথাও শোনা যায়। এই ঘটনায় ২০১৬ সালে গ্রেফতার হন ভারতের প্রাক্তন বায়ুসেনা প্রধান এস পি ত্যাগি। তিনি ঘুষের বদলে কাছের মানুষকে সুবিধা দিতেই ত্যাগি ৬০০০ মিটার উচ্চতায় উড়তে সক্ষম হেলিকপ্টারের বদলে ৪৫০০ মিটার উড়ার ক্ষমতা সম্পন্ন চপার কেনায় অনুমতি দেয়। তবে এই ত্যাগিই প্রথম গ্রেফতার হওয়া সেনা বাহিনীর প্রধান। তৎকালীন সংগ্রেস সরকারেরও এই ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগ উঠেছিল। কিন্তু সরকারের তরফে জানানো হয় এই অভিযোগ ওঠার সঙ্গে সঙ্গেই এই চুক্তি বাতিল করা হয়েছিল। এরপর সিবিআই এর হাতে এই মামলার তদন্তভার তুলে দেওয়া হয়। পাশাপাশি ভারতে সংশ্লিষ্ট সংস্থাটির সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করা হয়েছিল। তবে সিবিআই সূত্রের খবর মাইকেলকে প্রত্যার্পণের লিখিত নির্দেশ এখনও তাদের হাতে আসেনি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here