news national

মহানগর ওয়েবডেস্ক: দিল্লিতে সাম্প্রদায়িক সংঘর্ষের সময় ইন্টেলিজেন্স ব্যুরো কর্মী খুনে অভিযুক্ত বহিষ্কৃত আপ নেতা তাহির হোসেনের জামিনের আবেদন খারিজ করে দিল দিল্লির সেশন কোর্ট। দিল্লির সাম্প্রদায়িক সংঘর্ষের সময় উস্কানি দেওয়ার কথাও আবেদন খারিজের সময় উল্লেখ করেন বিচারক।

অতিরিক্ত সেশন কোর্টের বিচারপতি বিনোদ যাদব বলেন, ‘রেকর্ডে এমন অনেক তথ্যই আছে যা দেখে মনে হয় যে আবেদনকারী সংঘর্ষের সময় উপস্থিত ছিলেন এবং নিজে কোনও সংঘর্ষে লিপ্ত না হলেও এক বিশেষ সম্প্রদায়কে উস্কানি দিয়ে মানব অস্ত্র হিসেবে ব্যবহার করেছেন।’

গত ২৫ ফেব্রুয়ারি দিল্লির সংঘর্ষ চলার সময়েই খুন হন আইবি কর্মী অঙ্কিত শর্মা। বাড়ির অদূরেই এক নালার মধ্যে তাঁর দেহ মেলে। তার শরীরে ধারালো অস্ত্র দিয়ে ৫১টি কোপানোর দাগ ছিল। সেই ঘটনায় অভিযুক্ত ছিলেন তাহির হোসেন। তাঁর বাড়িতে তল্লাশি চালিয়ে উদ্ধার হয়েছিল নানান অস্ত্রশস্ত্র, পাথর ও পেট্রোল বোমা। ঘটনার তদন্তে নেমে তাহিরের বিরুদ্ধে ৪ টি এফআইআর দায়ের করে পুলিশ। প্রথমে গা ঢাকা দিলেও পরে আত্মসমর্পণ করেন তাহির।

খুনের অভিযোগের পাশাপাশি, তাহির হোসেনের বিরুদ্ধে প্রিভেনশন অফ মানি লন্ডারিং অ্যাক্ট (PMLA) ধারায় মামলা করে ইডি। উল্লেখ্য, আইবি কর্মী খুনের ঘটনার তদন্তের সময় তাহির হোসেন সম্পর্কে চাঞ্চল্যকর তথ্য সামনে এসেছিল। ২০১৭ সালে পুরসভা নির্বাচনে নেমে কাউন্সিলর হওয়া ক্লাস এইট পাশ তাহিরের সম্পত্তি আড়ে বহড়ে বেড়েছে অনেকখানি। বর্তমানে তা পেরিয়েছে কোটির অঙ্ক। শেষবার দিল্লির পুরসভা নির্বাচনে যে হলফনামা তাহির পেশ করেছেন তাতে দেখা যাচ্ছে ১৫ কোটি টাকার সম্পত্তি রয়েছে অভিযুক্ত এই কাউন্সিলর তাহিরের। পাশাপাশি তাঁর পুঁজি রয়েছে প্রায় ১৭ কোটি টাকার মতো। তবে এই বিপুল সংখ্যক সম্পত্তির মালিক তাহিরের কাছে রয়েছে একটি মাত্র মারুতি ও একটি মোটরসাইকেল।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here