ডেস্ক: ১৮ জন এডিএমকে বিধায়ককে তামিলনাড়ুর স্পিকার বরখাস্ত করেছিলেন। আর এবার স্পিকারের সেই সিদ্ধান্তে সিলমোহর দিল মাদ্রাজ হাইকোর্ট। নির্বাচন কমিশনকে ওই আঠেরোটি কেন্দ্রে পুনর্নির্বাচন করার নির্দেশ দিয়েছেন বিচারপতি।

এই রায়ের ফলে স্বস্তিতে পালানিস্বামী সরকার। তবে মাদ্রাজ হাইকোর্টের এই রায়ের বিরোধিতা করে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হবে বলে জানিয়েছেন ওই ১৮ জন বিধায়ক। এঁনারা সকলে হলেন শশীকলার অনুগামী। সে কারণেই বারবার দিনকরণের হয়ে কাজ করেন তাঁরা। এমনকি পালানিস্বামী সরকারকে তাঁরা বহুবার অপদস্থ করার চেষ্টা করেন। তবে হাইকোর্টের রায়ে মুখ পুড়ল দিনকরণের।

প্রসঙ্গত, এই কারণেই আস্থাভোটে যাতে পালানিস্বামী জিততে না পারেন সে কারণেই স্পিকারকে প্রভাবিতও করেন তাঁরা। এর ফলেই তামিলনাড়ুর স্পিকার এই ১৮ জন এডিএমকে বিধায়ককে বরখাস্ত করেন। এর ফলেই দেশের সর্বোচ্চ আদালত নিযুক্ত তৃতীয় বিচারপতিই বৃহস্পতিবার এই রায় দেন।

পুনর্নির্বাচন প্রসঙ্গে দিনকরণ বলেন, “যদি পুনর্নির্বাচন হয়, তাহলে আমরাই জিতব।”” এখন দেখা যাক, পুনর্নির্বাচনে কারা জেতে?”

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here