kolkata bengali news

ডেস্ক: এখনও কংগ্রেসের সাড়া পাওয়ার অপেক্ষা করছে বামফ্রন্ট। কংগ্রেস রাজ্যের প্রায় সব আসনে প্রার্থী দেওয়ার পরও আশা ছাড়ছে না্ বামেরা। যেসব আসনে তাদের জেতার সম্ভাবনা্, সেখানে বিজেপি ও তৃণমূল বিরোধী ভোট এক করতে চায় তারা। ফলে প্রার্থীপদ প্রত্যাহারপর্ব পর্যন্ত অপেক্ষা করবে বাম নেতৃত্ব। বুধবার রাজ্য বামফ্রন্টের চেয়ারম্যান বিমান বসুর বক্তব্যে এমন ইঙ্গিতই মিলেছে।

বিজেপি ও তৃণমূল ভোট এক জায়গায় করতে কংগ্রেসকে আসন সমঝোতার প্রস্তাব দিয়েছিল রাজ্য বামফ্রন্ট। প্রাথমিক পর্যায়ে বামেদের প্রস্তাব ছিল, তাদের জেতা দুটি আসনে কংগ্রেস প্রার্থী দেবে না।আবার কংগ্রেসের জেতা চারটি আসনে প্রার্থী দেবে না তারা। কিন্তু হঠাৎ ফ্রন্ট কয়েকটি কেন্দ্রের প্রার্থীর নাম ঘোষণা করে।যদিও কংগ্রেসের জেতা চারটি আসন ছেড়ে ওই তালিকা প্রকাশ করে বামেরা।এরমধ্যে কংগ্রেসও প্রথম তালিকা প্রকাশ করে। তাতে বামেদের জেতা দুটি আসনেও প্রার্থী দিয়ে দেয় কংগ্রেস। এরপরই জোট নিয়ে জটিলতা দেখা দেয়। এই পরিস্থিতিতে কংগ্রেসের চারটে জেতা আসন ছেড়ে বাকি আসনে প্রার্থী ঘোষণা করে বাম শিবির। আসন সমঝোতার জন্য অপেক্ষায় থাকে। কিন্তু কংগ্রেসের সাড়া মেলেনি।উল্টে কংগ্রেস যাদবপুর ও বাঁকুড়া ছাড়া সব আসনেই তাদের প্রার্থীর নাম ঘোষণা করে।

এদিন বিমান বসু জানান, কংগ্রেসের সঙ্গে প্রাথমিক পর্যায়ের কথা অনুযায়ী ঠিক ছিল, কেউ কারও জেতা আসনে প্রার্থী দেবে না। কিন্তু আমাদের জেতা দুটি আসনে প্রার্থী দিয়েছে কংগ্রেস। ফলে কংগ্রেসের জেতা চারটি আসন ছাড়া সব আসনে প্রার্থী দেওয়া হয়। গতকাল ফ্রন্টের প্রার্থী হিসাবে মুর্শিদাবাদের জঙ্গিপুরে জুলফিকার আলি ও মালদা উত্তর আসনে বিশ্বনাথ ঘোষের নাম ঘোষণা করেছি। আমাদের জেতা আসনে প্রার্থী তুলে নিলে আমরাও ওদের জেতা আসন থেকে আমাদের প্রার্থী তুলে নেব। নেব।ওরা আমাদের দুটো আসনে প্রার্থী দিয়েছে বলে আমরা দুটো আসনে দিয়েছি। এটা টিট ফর ট্যাট। ওরা না দিলে আমরা দিতাম না গোপন করে কিছু বলছি না।এখনও সময় আাছে। প্রত্যাহারের সময় আছে।আমাদের জেতা দুটি আসন থেকে প্রার্থী প্রত্যাহার করে নিলে আমরাও ওদের দুটি আসন থেকে আমাদের প্রার্থী প্রত্যাহার করে নে্ব।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here